১২ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
শুক্রবার | দুপুর ১:২৫
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মুন্সিগঞ্জে অস্ত্র ও মাদক মামলায় তিন ভাইসহ পাঁচজনের যাবজ্জীবন
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ৫ মার্চ, ২০২৪, নিজস্ব প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জে অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় আপন তিন ভাইসহ পাঁচজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে মুন্সিগঞ্জের জ্যেষ্ঠ জেলা ও দায়রা জজ কাজী আবদুল হান্নান এ রায় দেন। একই সঙ্গে তিনজনকে এক লাখ টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

দণ্ড পাওয়া আসামিরা হলেন—কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার সোনাদিয়া গ্রামের মৃত একলাস মিয়ার ছেলে মাকসুদ মিয়া, মো. রিয়াজ উদ্দিন ও শাহিন আলম এবং একই এলাকার জসিম উদ্দিন ও শামসুল আলম। তাঁদের মধ্যে শামসুল, মাকসুদ ও রিয়াজকে জরিমানা করেছেন আদালত। জসিম ও শাহিন জামিনে মুক্তির পর থেকে পলাতক।

আদালতের পেশকার মো. হোসেন রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, রায় ঘোষণার সময় তিন আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। অন্য দুজন জামিন নেওয়ার পর থেকে পলাতক। রায়ের পর আসামিদের কারাগারে নেওয়া হয়।

মামলার সংক্ষিপ্ত এজাহারে উল্লেখ করা হয়, মিয়ানমার থেকে বিপুল পরিমাণ মাদক নিয়ে নৌপথে পাচারকালে ২০২২ সালের ২ মার্চ সন্ধ্যায় মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার কাজীপুরা ফেরিঘাটের সামনে থেকে পাঁচজনকে আটক করে পুলিশ। তখন জসিমের কাছ থেকে ১টি বিদেশি পিস্তল, ৫টি গুলি, ১ হাজার ১৫০ বোতল ফেনসিডিল, শাহিনের কাছ থেকে ৪টি গুলিসহ ১টি বিদেশি পিস্তল, ১ হাজার ১৫০ বোতল ফেনসিডিল, সামছুল ও মাকসুদের কাছ থেকে ৬ কেজি করে ক্রিস্টাল মেথ আইস ও রিয়াজ উদ্দিনের কাছ থেকে এক লাখ ইয়াবা বড়ি জব্দ করা হয়। পরে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ও অস্ত্র আইনে গজারিয়া থানায় পৃথক দুটি মামলা হয়।

রাষ্ট্রপক্ষের সরকারি কৌঁসুলি আবদুল মতিন বলেন, অস্ত্র ও বিপুল পরিমাণ মাদক জব্দের ঘটনায় করা মামলায় পাঁচ আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

মুন্সিগঞ্জ আদালত পুলিশের পরিদর্শক জামাল উদ্দিন বলেন, রায়ের সময় তিনজন আসামিকে কারাগার থেকে পুলিশের পাহারায় আদালতে হাজির করা হয়। রায়ের পর তাঁদের আবার কারাগারে পাঠানো হয়।

error: দুঃখিত!