২১শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
শুক্রবার | দুপুর ২:৩৭
২০ ঘণ্টা পর স্বাভাবিক শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌপথ
খবরটি শেয়ার করুন:

দক্ষিণবঙ্গের প্রবেশদ্বার শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌপথে ২০ ঘণ্টা পর ফেরিসহ সব ধরনের নৌযান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে রো রো ফেরিসহ ছয়টি ফেরি চলাচলের মধ্য দিয়ে নৌপথে পারাপার শুরু হয়। তবে দুপুর ১২টার দিকে সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, ১৭টি ফেরি চলাচল শুরু করেছে এই নৌপথে। একই সঙ্গে ৮৭টি যাত্রীবাহী লঞ্চ ও তিন শতাধিক স্পিডবোটে করেও ঘরমুখো মানুষ পারাপার হচ্ছেন।

এর আগে গতকাল বুধবার দুপুর ১২টার দিকে পদ্মা অববাহিকায় উত্তাল ঢেউ ও প্রবল স্রোতের কারণে নৌপথে ফেরিসহ সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) শিমুলিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) আবদুল আলিম বলেন, ‘গতকাল বুধবার দুপুর ১২টার দিকে পদ্মা উত্তাল থাকায় ফেরিসহ অন্যান্য নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল। দীর্ঘ ২০ ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ থাকার পর আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে এই নৌপথে আংশিক ফেরি পারাপার শুরু হয়। পরে সব ফেরি চলাচলের মধ্য দিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। ফেরির পাশাপাশি লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচলও শুরু হয়েছে।

দীর্ঘ সময় ফেরি পারাপার বন্ধ থাকায় আজ বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত শিমুলিয়া ঘাটে সহস্রাধিক যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় ছিল।

এদিকে আজ দুপুরে ঢাকার আগারগাঁও আবহাওয়া কার্যালয় থেকে বলা হয়েছে, মৌসুমি বায়ু সক্রিয় অবস্থায় রয়েছে। স্থল মৌসুমি নিম্নচাপটি ভারতের ঝাড়খন্ড ও তৎসংলগ্ন এলাকায় রয়েছে।

‘এর কারণে সাগর ও নদ-নদীগুলো কিছুটা উত্তাল অবস্থায় রয়েছে। তাই দেশের সমুদ্রবন্দরগুলোতে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত এবং ঢাকা ও দক্ষিণাঞ্চলের নদ-নদী বন্দরকে ২ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।’

আবহাওয়া কার্যালয় থেকে আরো জানানো হয়েছে, আজ সকাল থেকেই ঢাকায় বৃষ্টি হচ্ছে। ঢাকায় সকাল ৬টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ২৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

এদিকে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়; রংপুর, রাজশাহী, সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ী দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

error: দুঃখিত!