৩০শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
মঙ্গলবার | বিকাল ৩:৪৬
মুন্সিগঞ্জে ধর্ষণ মামলার আসামী নৌকার প্রার্থী
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ২৩ নভেম্বর, ২০২১, বিশেষ প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার কোলা ইউনিয়নে ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন ধর্ষণ মামলার আসামী। এই মামলায় তিনি জেলও খেটেছেন। তবে দীর্ঘদিন ধরে তিনি এলাকায় না থাকলেও তিনি জামিনে আছেন না কারাগারে রয়েছেন তা বিভিন্ন দপ্তরের সাথে কথা বলেও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

মুন্সিগঞ্জ জেলা কারাগারের জেলার আবুল বাশার বলেছেন, তিনি ধর্ষণের মামলায় ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে বেশ কিছুদিন ছিলেন। তবে বর্তমানে তিনি জামিনে আছেন না কারাগারে আছেন সেটি নিশ্চিত নই।

অভিযুক্ত মীর লিয়াকত আলীর ছোট ভাই জুয়েল মীরের দাবি, তার বড় ভাই মীর লিয়াকত আলী বেশ কয়েকদিন যাবৎ অসুস্থ। তিনি কথা বলতে পারছেন না। তার ফোন বন্ধ। তিনি পিজি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ধর্ষণ মামলায় বর্তমানে জেলে থাকার বিষয়টি তিনি অস্বীকার করেন।

তিনি বলেন, দ্রুত তিনি এলাকায় আসবেন।

জানা যায়, আজ মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) চতুর্থ দফা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের দলীয় প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করেছে আওয়ামী লীগ।

এতে মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার কোলা ইউনিয়নে মীর লিয়াকত আলীর নাম রয়েছে। তিনি ২০১৯ সালের কিশোরী ধর্ষণ মামলার আসামি।

২০১৯ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধিত ২০০৩) এর ৯ (১)/৩০ ধারায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালত মুন্সিগঞ্জে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী কিশোরীর মা। মামলা নং-১০/২০১৯।

সিরাজদিখান উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ বলছেন, ‘উপজেলা থেকে মনোনয়নের জন্য মীর লিয়াকত আলীর নাম সহ আরও কয়েকজনের নাম পাঠানো হয়েছিলো। কেন্দ্রীয় কমিটি তাকে মনোনয়ন দিয়েছে। বর্তমানে তিনি জেলে রয়েছেন। জেলে থেকেই তিনি মনোনয়নের জন্য আবেদন করেছেন।’

‘ধর্ষণের মামলায় তিনি অভিযুক্ত নন, মামলাটি চলমান’ যোগ করেন মহিউদ্দিন।

মুন্সিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান বলছেন, ‘আমরা জানি সে মামলার আসামি। আমরা তার আবেদনের সাথে লিখেই দিছি সে ধর্ষণ মামলার আসামি। এবং বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন।’

error: দুঃখিত!