১৮ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
বৃহস্পতিবার | সকাল ১০:১০
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মুন্সিগঞ্জে আ. লীগ সভাপতির মাথা ফাটালো যুবলীগ সভাপতি!
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ২৮ অক্টোবর, ২০২২, নিজস্ব প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জে শ্রীনগরে চাঁদা নিয়ে বাকবিতন্ডার জেরে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতির মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার উঠেছে ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে।

চায়ের কাপ ছুড়ে উপজেলার হাসাড়া ইউনিয়নের ৫নং আওয়ামী লীগের সভাপতি শামসুল হক মোল্লার মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার এ অভিযোগ উঠেছে বীরতারা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ও ৪নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য প্রদীপ মন্ডলের বিরুদ্ধে।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার নাগেরপাড়া বাস স্ট্যান্ডে এ ঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ে শামসুল হক বাদী হয়ে শ্রীনগর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শামসুল হক মোল্লার ছোট ভাই বজলুর রহমান বীরতারা ইউনিয়নের সাতগাঁও এলাকায় নিজ জমি ভড়াটের কাজে প্রদীপ মন্ডল বাধা প্রদান করে। কাজ করার জন্য প্রদীপ শামসুল হকের কাছ থেকে ২০হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। এ বিষয় নিয়ে শুক্রবার সকালে নাগেরপাড়া বাস স্ট্যান্ডে উভয়ের মাঝে বাকবিতন্ডার সৃষ্টি হলে এক পর্যায়ে ইউপি সদস্য প্রদীপ মন্ডল তার হাতে থাকা চায়ের কাপ দিয়ে শামসুল হকের মাথায় আঘাত করলে ঘটনাস্থলে সে রক্তাক্ত জখম হয়।

পরবর্তীতে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে চিকিৎসা দেন।

ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি মো. শামসুল হক মোল্লা অভিযোগ করে বলেন, মাস আগে আমার নিজের জমি ভরাট করতে গেলে তখন সে আমার কাছে চাঁদা দাবি করে। আমি সেটা মশকরা ভেবে উড়িয়ে দেই। এখন আমার ছোট ভাই বজলুর রহমান তার বাড়ির পাশের নিচু জায়গাটি ভড়াট করতে গেলে প্রদীপ আবার আমার কাছে এসে চাদা দাবি করে বলে আমার ছোট ভাইয়ের কাছ থেকে যেন আমি তাকে বিশ হাজার টাকা নিয়ে দেই। এ বিষয়ে তার সাথে আমার কথা কাটাকাটি হয়। তখন তার হাতে থাকা চায়ের কাপ দিয়ে আমার মাথায় আঘাত করে মাথা ফাটিয়ে দেয়। আমি ওর বিচার চাই।

এবিষয়ে প্রদিপ মন্ডল বলেন, আমি কোন চাঁদা দাবি করি নাই। নির্বাচন নিয়ে তার সাথে আমার ঝগড়া। সকালে সে আমাকে মারতে আসলে একপর্যায়ে সে পরে যায়। তখন তার মাথা ফেটে যায়। আমি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতিকে বিষয়টি জানিয়েছি।

শ্রীনগর থানার ওসি আমিনুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

error: দুঃখিত!