৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
শুক্রবার | দুপুর ১২:৪০
পদ্মা সেতুতে ট্রাক উল্টে আহত ৩
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ২৭ জুন, ২০২২, বিশেষ প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে পেঁয়াজবাহী ট্রাক উল্টে ৩ জন আহত হয়েছে।

পদ্মা সেতুর উত্তর ভায়াডাক্টে (নদীর বাইরের অংশ) পেঁয়াজবাহী ট্রাক উল্টে আহত তিনজনের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

সেইসঙ্গে অতিরিক্ত গতির কারণেই এ দুর্ঘটনা বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পদ্মা সেতুতে যান চলাচলের দ্বিতীয় দিনে আজ সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহত তিনজনকে সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। তবে তারা কোন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তা জানা যায়নি।

ট্রাকে থাকা পেঁয়াজের মালিক মো. শাহেদ বলেন, ‘গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর থেকে ১৩৪ বস্তা পেঁয়াজ নিয়ে ঢাকার শ্যামবাজারে যাচ্ছিলাম। জাজিরা প্রান্ত থেকে সেতুর মাওয়া প্রান্তে পৌঁছালে হঠাৎ গাড়িটির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন চালক। একবার এপাশে যায়, আরেকবার ওপাশে যায়। এর মধ্যে অ্যাক্সিডেন্টটা করে। সেতুর রেলিংয়ে ধাক্কা খেয়ে উল্টে যায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘গাড়িতে আমরা মোট চারজন ছিলাম। তাদের মধ্যে তিনজন আহত হই। আমার হাত কেটে গেছে। ড্রাইভার-হেলপারের নাম বলতে পারবো না। তবে আহত একজন আমার ভাতিজা। নাম কেরামত (২১)।’

একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, গাড়িটি অনেক জোরে আঁকাবাঁকা চলে রেলিংয়ে ধাক্কা মারে। চালক, হেলপারসহ আরেকজন গুরুতর আহত হন। তাদের শরীর থেকে রক্ত পড়ছিল। সেনাবাহিনী এসে তাদের গাড়িতে করে নিয়ে যায়।’

এ বিষয়ে পদ্মা সেতু উত্তর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসাইন বলেন, ‘অতিরিক্ত গতির কারণেই এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। খবর পাওয়ার পরপরই ঘটনাস্থলে থেকে দুর্ঘটনাকবলিত গাড়িটি রেকার দিয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়। আহতরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।’

ট্রাকের গতি ছিলো বেপরোয়া

মুন্সিগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে পদ্মা সেতুর উত্তর ভায়াডাক্টে (নদীর বাইরের অংশ) পেঁয়াজবাহী ট্রাক উল্টে আহত তিনজনের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

সেইসঙ্গে অতিরিক্ত গতির কারণেই এ দুর্ঘটনা বলে জানিয়েছে পুলিশ। পদ্মা সেতুতে যান চলাচলের দ্বিতীয় দিনে গতকাল সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহত তিনজনকে সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। তবে তারা কোন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তা জানা যায়নি।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, গাড়িটি অনেক জোরে আঁকাবাঁকা চলে রেলিংয়ে ধাক্কা মারে। চালক, হেলপারসহ আরেকজন গুরুতর আহত হন। তাদের শরীর থেকে রক্ত পড়ছিল। সেনাবাহিনী এসে তাদের গাড়িতে করে নিয়ে যায়।’

error: দুঃখিত!