১৮ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
বৃহস্পতিবার | সকাল ১১:০১
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
পদ্মা সেতুর নিচে নিখোঁজ আরেক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ৩ জুন ২০২৩, বিশেষ প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের লৌহজংয়ে পদ্মা সেতুর ১৬ নং পিলারের সামনে নদীতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড ইলেক্ট্রনিকস ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী নূরুল হক নাফিউর (২৩) মরদেহ উদ্ধার করেছে নৌ পুলিশ।

শনিবার দুপুর ১১টা ১৫ মিনিটের দিকে লৌহজং তেউটিয়া ইউনিয়নের বর্ণপাড়া এলাকায় পদ্মা নদীতে ভাসমান অবস্থায় তার মরদেহ পাওয়া যায়।

এর আগে গতকাল শুক্রবার দুপুরে পদ্মা সেতুর ১৬ নং পিলারের নিচে চার বন্ধু মিলে নদীতে গোসল করতে নামলে দুইজন নিখোঁজ হন। এর মধ্যে শুক্রবার বিকাল ৪টার দিকে সব্যসাচী সৌম্য দাসের মরদেহ পাওয়া গেলেও নিখোঁজ ছিলেন নূরুল হক নাফিউ।

মাওয়া নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোহাম্মদ মাহবুব হোসেন এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, লৌহজং উপজেলার মাওয়া অংশের পদ্মা সেতুর ১৬ নং পিলারের নিচে শুক্রবার দুপুরে চার বন্ধু স্পিডবোটে করে ঘুরতে যান। পরে সেখানে তারা নদীতে গোসল করতে নামলে দুই বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নিখোঁজ হন। শুক্রবার (২ জুন) বিকাল সোয়া ৪ টার দিকে নদীর তলদেশ থেকে নিখোঁজ ঢাকার তেজগাঁওয়ের তেজকুনিপাড়া এলাকার সরোজ দাসের ছেলে সব্যসাচী সৌম্য দাসের (২৬) মরদেহ পাওয়া যায়। এবং শনিবার সকাল সোয়া এগারোটার দিকে ঢাকার বাড্ডার নতুন বাজার এলাকার শরিফুল হকের ছেলে নুরুল হক নাফিউর (২৩) মরদেহ ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

মাওয়া নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোহাম্মদ মাহবুব হোসেন জানান, গতকাল উদ্ধারকৃত সব্যসাচী সৌম্য দাসের মরদেহ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। নূরুল হক নাফিউর মরদেহ নৌ পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।

error: দুঃখিত!