১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
রবিবার | দুপুর ২:৪২
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
সাংবাদিকের তথ্যে নবম ও দশম শ্রেণির দুই ছাত্রীর বাল্য বিয়ে বন্ধ করলেন ইউএনও
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ১৯ মার্চ, ২০২১, গজারিয়া প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় সাংবাদিকের তথ্যে নবম ও দশম শ্রেণির দুই ছাত্রীর বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জিয়াউল ইসলাম চৌধুরী।পুরান বাউশিয়া,মেয়েঃসুমাইয়া,বিয়ে হচ্ছে ছোট মোনের।নবম শ্রেনীতে পড়ে। মেয়ের নাম মিম পিতার নাম মন্টু মিয়া গ্রাম নয়া নগর গজারিয়া গার্লস স্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্রী

আজ শুক্রবার (১৯ মার্চ) দুপুরে উপজেলার পুরাতন বাউশিয়া ও নয়ানগর গ্রামে এঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ে গজারিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জিয়াউল ইসলাম চৌধুরী জানান, স্থানীয় এক সাংবাদিকের মাধ্যমে খবর পাই শুক্রবার দুপুরে উপজেলার পুরাতন বাউশিয়া এলাকার নবম শ্রেণীর একছাত্রীর সাথে পাশের গ্রামের এক ছেলে ও গজারিয়া ইউনিয়নে নয়ানগর এলাকার দশম শ্রেণীর এক ছাত্রীর সাথে একই উপজেলার ইমামপুরা ইউনিয়নের করিমশাহ গ্রামের এক ছেলের বিয়ের আয়োজন করেছে দুই ছাত্রীর পরিবার।

এরপর ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তা বন্ধ করে দেওয়া হয়। এসময় বাল্য বিয়ে নিরোধ আইনে বিয়ে আয়োজনের উদ্যোগ নেওয়ায় ছাত্রীর বাড়ির লোকদের ১০হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া আমাদের প্রতি ইউনিয়নে কিশোর-কিশোর ক্লাব আছে। দুপুরে পুরাতন বাউশিয়া এলাকার সে ক্লাবের সদস্যরা আমাকে নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীর বাল্যবিয়ের বিষয়টি অবহিত করে। সে ঘটনায় স্থানীয় চেয়ারম্যানের মাধ্যমে ওই ছাত্রীর বিয়ে বন্ধ করা হয়।

তিনি জানান, বিয়ে বন্ধ করা পর্যন্ত দুটি আয়োজনেই ছেলের পক্ষের লোকজন পরে আর উপস্থিত হয়নি। আয়োজনের খাবার স্থানীয় এতিমখানা ও মাদ্রাসায় বিতরণ করা হয়েছে।

error: দুঃখিত!