১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
শনিবার | সন্ধ্যা ৭:২০
মুন্সিগঞ্জে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ২৮ জুলাই, ২০২০, আমিনুল ইসলাম মাছুম (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগরে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে এক গৃহবধূকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

প্রতিবেশী মৃত জব্বার মাদবরের ছেলে আক্তার মোড়ল (৪২) এর বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করা হয়।

ঘটনাটি ঘটেছে গত ৩ জুলাই উপজেলার বাড়ৈখালী ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডে রাত সারে ১০ টার দিকে।

জানা গেছে, ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত একাধিক মামলার আসামী ও কুখ্যাত সন্ত্রাসী আক্তার মোড়লের ভয়ে গৃহবধূ এতদিন মামলা করতে সাহস পাচ্ছিলেন না।

ভূক্তভোগী ধর্ষিতা অসহায় গৃহবধূ জানায়, প্রতিবেশী হওয়ায় আক্তার প্রায়ই তাদের বাড়িতে আসতেন। প্রায় ৩ মাস পূর্বে সন্ত্রাসী আক্তার কৌশলে তার ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বার সগ্রহ করে মাঝে মধ্যেই মোবাইল ফোনে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। আর বিষয়টি কাউকে জানালে তার স্বামীকে গুলি করে মেরে ফেলা হবে বলে হুমকী দেয়। ঘটনার দিন রাত আনুমানিক সারে ১০ টার দিকে গৃহবধূ প্রকৃতির ডাকে ঘরের বাহির হয়। আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা আক্তার হঠাৎ তার মাথায় পিস্তল ও গলায় ছুরি ঠেকিয়ে চিৎকার না করতে বারন করেন এবং বাড়ির পাশে বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে। আর এ বিষয় কাউকে জানালে তার চার বছরের শিশু বাচ্চাকে পানিতে ডুবিয়ে মেরে ফেলা হবে বলেও হুমকী দেয়। স্বামী ও সন্তানের জীবন রক্ষায় নিরুপায় হয়ে গৃহবধূ কাউকে কিছু জানাতে পারছিলনা।

এভাবে বিভিন্ন ভয় দেখিয়ে আক্তার গৃহবধূকে আরো তিন-চার দিন ধর্ষণ করে। একপর্যায়ে গৃহবধূ বুঝতে পারে বিষয়টি স্বামীকে না জানালে তার সংসার ভেঙ্গে যাবে। গৃহবধূ স্বামীসহ তার পরিবারের সবাইকে বিষয়টি জানায় এবং মামলার প্রস্ততি নেয়। মামলার প্রস্ততির বিষয়টি আক্তার জানতে পেরে ওই গৃহধূর বাড়ি-ঘরে হামলা চালায় এবং মামলা করলে পরিবারের সবাইকে মেরে ফেলা হবে বলে হুমকী দেয়।

স্থানীয় ৬০ উর্দ্ধে এক বৃদ্ধা কান্না জরিত কন্ঠে বলেন, প্রায় ১ বছর পূর্বে সন্ত্রাসী আক্তার তার প্রবাসী ছেলের বউকে বিভিন্ন ভয় দেখিয়ে অবৈধ মেলা মেসা করতে বাধ্য করে। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়ে পরলে আক্তার তাদের বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। আক্তারের ভয়ে ওই বৃদ্ধার পুত্রবধূ নাতনী নিয়ে ঢাকায় ভাড়া বাসায় থাকছেন। এছাড়া আপন শ্যালিকা ও আক্তারের হাত থেকে রক্ষা পায়নি।

স্থানীয় একাধিক এলাকাবাসী জানায়, সন্ত্রাসী আক্তার মোড়ল যখন তখন যে কাউকে অস্ত্র বাহির করে ভয় দেখায়। সন্ত্রাসী আক্তারের বিরুদ্ধে ভয়ে এলাকার কেউ মুখ খুলতে সাহস পায় না। তার বিরুদ্ধে ডাকাতি, মাদক ও মারামারিসহ একাধিক মামলার আসামী ছিল। বেশ কয়েক দিন পার হয়ে গেলেও অবশেষে ভয় ভেঙ্গে গৃহবধূ ২৭ জুলাই শ্রীনগর থানায় মামলা করতে আসেন।

এ ব্যাপারে শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ হেদায়েতুল ইসলাম ভূয়ার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মামলার প্রস্ততি চলছে।

error: দুঃখিত!