৬ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সোমবার | রাত ১০:৪৭
ঢাকার পাশে একদিনে বেড়ানোর বিখ্যাত ও সুন্দর জায়গা আড়িয়াল বিল (ভিডিওসহ)
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ডেস্ক রিপোর্ট (আমার বিক্রমপুর)

দেশের অন্যতম বড় ও প্রাচীণ বিল। ঢাকা থেকে যার দূরত্ব মাত্র ৪২ কিলোমিটার। তাই একদিনে যারা পরিবার বা বন্ধুদের নিয়ে ঘুড়তে বেরোতে চান তারা ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ে হয়ে চলে আসতে পারেন বিখ্যাত আড়িয়াল বিলে। চাইলে, সকালে এসে পুরো বিল ঘুরে সন্ধ্যার আগেই বাড়িতে ফিরতে পারবেন।

ঢাকার দোহার, নবাবগঞ্জ ও মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলা এবং সিরাজদিখান উপজেলার ১৬ টি ইউনিয়নের ৭০টি গ্রাম নিয়ে আড়িয়াল বিলের অবস্থান। ২৬ মাইল দৈর্ঘ্য এবং ১০ মাইল প্রস্তের এ জলাভূমির আয়তন ১ লাখ ৬৬ হাজার ৬০০ একর।

যার বেশিরভাগ অংশই পড়েছে মুন্সিগঞ্জে। বিলটিকে ঘিরে প্রায় ১০ লাখ লোকের জীবন-জীবিকা নির্বাহ হয়ে থাকে।

আড়িয়াল বিলের বিভিন্ন অংশে প্রাকৃতিকভাবে জন্ম নেয়া শাপলা। ছবি: আমার বিক্রমপুর।

ধারণা করা হয়, প্রাচীন কালে এই স্থানটিতে গঙ্গা ও ব্রহ্মপুত্র নদীর সঙ্গমস্থল ছিল, পরবর্তীতে উভয় নদীর প্রবাহ পরিবর্তনের ফলে এই স্থান শুষ্ক হয়ে বিলে পরিণত হয়।
বিলটি ঢাকা ও মুন্সিগঞ্জ জেলা এবং পদ্মা নদীর মাঝখানে একটি ছিটমহলসম জলাভূমি। বছরের ৬ মাস বিলটি থাকে পানির নিচে আর বাকি ৬ মাস থাকে শুস্ক ফসলি জমি। বিলে শীত ও বর্ষা মৌসুমে প্রকৃতির বৈচিত্র্যময় রুপ লক্ষ্য করা যায়। তবে র্বষায় এর সৌর্ন্দয সবচেয়ে বেশি উপভোগ্য।

নৌকা নিয়ে বিলের কচুরি সহ বিভিন্ন জলজ উদ্ভিদ সংগ্রহ করে থাকেন স্থানীয়রা। ছবি: আমার বিক্রমপুর।

আড়িয়াল অর্থ জলজ ভূমির আধার। আড়িয়াল বিল প্রচুর মৎস্য ও জলজ উদ্ভিদের অভয়ারণ্য বিধায় বিলে ঢুকলেই আপনার চোখে পড়বে নানা প্রজাতীর পাখি, নৌকা নিয়ে মাঝিদের আনাগোনা, গ্রামীণ পদ্ধতিতে মাছ ধরার ভেসাল, দেশীয় বিভিন্ন জীব, জাতীয় ফুল শাপলা, কচুরি ফুল সহ অপরুপ সব প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য। চারিদিকে চোখে পড়বে ঢেউহীন এক পানির রাজ্য। জল ও জঙ্গলের দৃশ্য দেখে মুহূর্তেই আপনি মুগ্ধ হয়ে যাবেন।

আড়িয়াল বিলকে বলা হয় জলজ উদ্ভিদের আধার। নানা প্রজাতীর জলজ উদ্ভিদ রয়েছে আড়িয়াল বিলে। ছবি: আমার বিক্রমপুর।

প্রতিবছর বর্ষা মৌসুমে অপরুপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের টানে পর্যটকরা ভিড় জমান আড়িয়াল বিলে। তাই এখনই আড়িয়াল বিল ভ্রমণের উপযুক্ত সময়।

কিভাবে যাবেন?

ঢাকা থেকে যারা আড়িয়াল বিল ভ্রমণে আসতে চান তাদের ঢাকার গুলিস্তান বা মিরপুর থেকে মাওয়াগামী বাসে উঠে ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ে হয়ে শ্রীনগর বাজারে নেমে যেতে হবে। এরপর সেখান থেকে অটোরিকশা বা ব্যটারিচালিত মিশুক নিয়ে গাদিঘাট নামক জায়গায় যেতে হবে।

আড়িয়াল বিলে ঢুকতেই চোখে পড়বে গ্রামীণ পদ্ধতিতে মাছ ধরার ভেসাল। ছবি: আমার বিক্রমপুর।

অথবা শ্রীণগর বাজারের পাশের খাল থেকেও সারাদিনের জন্য ট্রলার ভাড়া পাওয়া যাবে। ভাড়া নিবে ১৫০০ টাকা থেকে ২ হাজার টাকা। যেহেতু এখন রোদের তাপ বেশি, তাই ছাউনিওয়ালা ট্রলার দেখে নিতে হবে। ট্রলারে উঠার আগে শুকনো খাবার ও পানি নিয়ে নিবেন। কারন বিলের আশেপাশে কোন খাবারের দোকান পাবেন না। সারাদিন বিলে থাকতে চাইলে পুরোদিনের খাবার ট্রলারে উঠার আগেই সংগ্রহ করে নিতে হবে।

error: দুঃখিত!