১৫ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সোমবার | ভোর ৫:২১
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মুন্সিগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনে কে কোন প্রতীক পেলেন
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, নিজস্ব প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জে জেলা পরিষদ নির্বাচননে প্রতিদ্বন্দী প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এসময় নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. মহিউদ্দিনকে চেয়ারম্যান এবং ২ নং ওয়ার্ড এর সদস্য প্রার্থী এম মাহবুব উল্লাহ কিসমতকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জেলা পরিষদের সদস্য নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়েছে।

তাদের বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করেন জেলা পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক কাজী নাহিদ রসুল।

গতকাল সোমবার সকালে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে প্রতীক বরাদ্দ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এসময় ২০ জন সাধারণ সদস্য ও ৮ জন সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীর মাঝে প্রতীক বরাদ্দ করেন জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা।

১ নং সংরক্ষিত ওয়ার্ড (সিরাজদিখান, শ্রীনগর ও লৌহজং)
এই আসন থেকে ৫ জন চূড়ান্ত প্রার্থীকে প্রতীক দেওয়া হয়েছে। হেলেনা ইয়াসমিনকে দোয়াত কলম, নূরজাহানকে হরিণ, আছিয়া আক্তার রুমুকে টেবিল ঘড়ি, মোসাম্মৎ হোসনে আরা বেগমকে ফুটবল ও আখি শাহিনকে মাইক প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়।

২ নং সংরক্ষিত ওয়ার্ড (মুন্সিগঞ্জ সদর, টংগিবাড়ী ও গজারিয়া)
এই আসন থেকে চূড়ান্ত ৩ প্রার্থীর মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। মোরশেদা বেগমকে বই,সালমা বেগমকে দোয়াত কলম ও আকলিমা আক্তারকে ফুটবল প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়।

সাধারণ সদস্য ১ নং ওয়ার্ড (সিরাজদিখান উপজেলা)
এই আসন থেকে থেকে চূড়ান্ত ৬ প্রার্থীর মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়। তারা হলেন, মোহাম্মদ মান্নান হাওলাদারকে টিউবওয়েল, এস এম আলমগীর হোসেনকে অটোরিক্সা, আলী আহম্মদকে হাতি, মো. মাসুদ লস্করকে তালা, মির্জা মোহাম্মদ হায়দার নেকবরকে ঘুড়ি ও এইচ এম সাইফুল ইসলামকে বৈদ্যুতিক পাখা প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নিবেন।

সাধারণ সদস্য ২ নং ওয়ার্ড থেকে এম মাহবুব উল্লাহ কিসমত বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ায় এখানে আর কোন প্রার্থী না থাকায় এখানে কোন প্রতীক বরাদ্দ করা হয়নি।

সাধারণ সদস্য ৩ নং ওয়ার্ড (লৌহজং উপজেলা)
এই আসন থেকে চূড়ান্ত ৩ প্রার্থীকে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। তারা হলেন, মো. সিরাজুল ইসলাম মৃধাকে হাতি, মোহাম্মদ ইদ্রিস আলী শেখকে টিউবওয়েল ও মো. আলমগীর কবির খানকে তালা প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়।

সাধারণ সদস্য ৪ নং ওয়ার্ড (টংগিবাড়ী উপজেলা)
এই আসন থেকে চূড়ান্ত ৫ প্রার্থীর মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। তারা হলেন, এ কে মোহাম্মদ শরিফ উল-আলম রাজিবকে অটোরিক্সা, কাজী আকবর হোসেনকে টিউবওয়েল, মানিক মিয়া বাচ্চু মাঝিকে বৈদ্যুতিক পাখা, আলহাজ আজিজুল হাসানকে হাতি ও আতিকুর রহমান তালা প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নিবেন।

সাধারণ সদস্য ৫ নং ওয়ার্ড (মুন্সিগঞ্জ সদর)
এই আসন থেকে ড়চূড়ান্ত ৩ প্রার্থীর মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। তারা হলেন, মোহাম্মদ আরিফুর রহমানকে টিউবওয়েল, আক্তারউজ্জামানকে তালা ও মাহমুদুল হাসান সাদিকে হাতি প্রতীক দেওয়া হয়েছে।

সাধারণ সদস্য ৬ নং ওয়ার্ড (গজারিয়া উপজেলা)
এই আসন থেকে থেকে চূড়ান্ত ৩ প্রার্থীর মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে মোহাম্মদ মোস্তফা সারওয়ার বিপ্লবকে উটপাখি, মো. সাইদুর রহমানকে হাতি ও মো. সাইফুল ইসলামকে তালা প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

আগামী ১৭ অক্টোবর জেলার ৬টি উপজেলার ৬ টি উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে সকাল ৯ টা থেকে দুপুর ২ টা পর্যন্ত ১২ টি ভোটকেন্দ্রে ভোট গ্রহণ চলবে। জেলায় মোট ৯২২ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এদের মধ্যে পুরুষ ৭০৪ জন, নারী ২১৮ জন।

এবারের নির্বাচনে ইলেকট্রিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) পদ্ধতিতে ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

error: দুঃখিত!