২২শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
শুক্রবার | বিকাল ৪:২২
মুন্সিগঞ্জে স্কুলছাত্রী ও নববধূকে ধর্ষণ
খবরটি শেয়ার করুন:

কাজী সাব্বির আহমেদ দীপুঃ মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগরে থার্টিফার্স্ট নাইটে দশম শ্রেণির ছাত্রী ও এক নববধূ ধর্ষণের শিকার হয়েছে।

এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের পর পুলিশ স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণে অভিযুক্ত রাকিব হাসান ও নববধূকে ধর্ষণে সহায়তার অভিযোগে তার স্বামী আজিজুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে। ভুক্তভোগীদের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শ্রীনগর উপজেলার কোলাপাড়া ইউনিয়নের একটি গ্রামের বাসিন্দা ওই স্কুলছাত্রী রাত ১২টার দিকে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘর থেকে বের হয়। এ সময় ওত পেতে থাকা একই গ্রামের মাজেদ শেখের বখাটে ছেলে রাকিব হাসান দরজা খোলা পেয়ে ঘরে ঢুকে লুকিয়ে থাকে। পরে ঘরে একা পেয়ে ছাত্রীকে সে ধর্ষণ করে। এ সময় ছাত্রীর চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে রাকিবকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

অন্যদিকে, একই রাতে উপজেলার আরেকটি গ্রামের বাসিন্দা এক নববধূকে ধর্ষণ করে তার খালাতো দেবর। গ্রামের বাছের বেপারীর ছেলে আজিজুল বেপারী তিন মাস আগে একই উপজেলার একটি গ্রামে বিয়ে করে। বিয়ের পর থেকেই স্ত্রীর পরিবারের সঙ্গে আজিজুলের বিরোধ দেখা দেয়। তিন দিন আগে আজিজুল তার স্ত্রীকে শ্বশুরবাড়ি থেকে তার বাড়িতে নিয়ে যায়। থার্টিফার্স্ট নাইটে আজিজুল তার খালাতো ভাই নুরুল ইসলামকে বাড়িতে ডেকে আনে। মধ্যরাতে নুরুল খালাতো ভাইয়ের উপস্থিতিতেই তার স্ত্রীকে ধর্ষণ করে। পুলিশ নুরুলকে গ্রেফতার করতে না পারলেও ধর্ষণে সহায়তার অভিযোগে আজিজুলকে গ্রেফতার করেছে।

শ্রীনগর থানার ওসি ইউনুচ আলী জানান, পৃথক ঘটনায় থানায় মামলার পর গৃহবধূর স্বামী আজিজুল ও স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণে অভিযুক্ত বখাটে রাকিব হাসানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গৃহবধূকে ধর্ষণে অভিযুক্ত নুরুলকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

error: দুঃখিত!