১৭ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
বুধবার | দুপুর ১:১৮
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মধ্যরাতে কবরস্থানের দেয়ালে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় প্রাণ গেছে দুই বিয়াইয়ের
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ১৯ জুন ২০২৪, নিজস্ব প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের টংগিবাড়ীতে মধ্যরাতে মোটরসাইকেলের গতি নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হয়ে কবরস্থানের দেয়ালের সঙ্গে ধাক্কা লেগে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এসময় আহত হন আরও একজন।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত সোয়া দুইটার দিকে উপজেলার মুক্তারপুর-দিঘীরপাড় সড়কের কামারখাড়া ইউনিয়নের বেশনাল কবরস্থান এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলার আধারা ইউনিয়নের তাতিকান্দি এলাকার হান্নান ছৈয়ালের ছেলে মো. নাসির ছৈয়াল (২৬) ও বাংলাবাজার ইউনিয়নের বানিয়াল এলাকার দ্বীন ইসলাম গাজীর ছেলে মোকসেদ গাজী (২৭)। সম্পর্কে তারা বেয়াই। আহত ব্যক্তির নাম মো. সোহাগ (২৬)।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে দুর্ঘটনাকবলিত মোটরসাইকেলটি উচ্চগতিতে বেশনাল কবরস্থান এলাকায় মোড় ঘুরতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারায়। একপর্যায়ে কবরস্থানের দেয়ালে সজোরে ধাক্কা লাগলে মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পরে যান তিনজন। কিছুক্ষণের মধ্যেই পেছনে থাকা অপর মোটরসাইকেল চালক রমি সরদার ঘটনাস্থলে তিনজনকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন।

নিহত মোকসেদ গাজীর ভাই জমসেদ গাজী বলেন, ‘রাতে সদর উপজেলার শিলই এলাকায় একটি গায়ে হলুদ শেষ করে ২টি মোটরসাইকেলে করে মোট ৬জন ঘুরতে বের হন। টংগিবাড়ী উপজেলার হাসাইল যাওয়ার পথে বেসনাল এলাকায় পৌছালে মোকসেদ ও সোহাগকে নিয়ে চালকের আসনে থাকা নাছির মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারায়। এসময় মোটরসাইকেলটি দ্রুত গতিতে পাশের কবরস্থানের দেয়াল ও বিদ্যুৎয়ের খুঁটিতে ধাক্কা লেগে ৩জনই ছিটকে পরে যান। এতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় মোকসেদের। পরে অপর মোটরসাইকেল চালক-আরোহীরা নাসির ও সোহাগকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে মৃত্যু হয় চালক নাসিরের। আহত সোহাগকে উদ্ধার করে মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।’

দিঘীরপাড় পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের উপ পরিদর্শক এম আশরাফুল ইসলাম বলেন, ‘মোটরসাইকেলের অতিরিক্ত গতির কারনে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। এ ঘটনায় নিহত দুজনের লাশ মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে আইনগত প্রক্রিয়ার মাধ্যমে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।’

error: দুঃখিত!