১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
রবিবার | রাত ২:৪৭
শীর্ষ সস্ত্রাসী “মামা ভাগিনা বাহিনী” সেকেন্ড-ইন কমান্ড আগ্নেয়াস্ত্রসহ গ্রেফতার
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ ২৭ নভেম্বর, ২০১৯, বিশেষ প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

ঢাকা জেলার দোহার থানাধীন দক্ষিন জয়পাড়া গ্রামস্থ মৃত মন্নাফ বেপারীর বাড়িতে “মামা ভাগিনা বাহিনীর” সেকেন্ড-ইন কমান্ডকে ০১টি অত্যাধুনিক রিভলবার, ০১টি দেশীয় তৈরী অস্ত্র হাসুয়া, ০১টি দেশী তৈরী অস্ত্র চাপাতি ও মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেটসহ গ্রেফতার করে মুন্সিগঞ্জের ভাগ্যকুলের র‌্যাব-১১ এর একটি চৌকস দল।

মঙ্গলবার (২৭ নভেম্বর) ভোর সোয়া ৭টার সময় এই অভিযান শেষ হয়। গ্রেফতারকৃত শীর্ষ সন্ত্রাসী মোঃ খলিল (৩০) ঢাকা জেলার দোহার থানার দক্ষিণ জয়পাড়ার মৃত মন্নাফ বেপারীর ছেলে।

র‌্যাব-১১ জানায়, ঢাকা জেলার দোহার থানাধীন দক্ষিন জয়পাড়া গ্রামস্থ মৃত মন্নাফ বেপারী বাড়িতে “মামা ভাগিনা বাহিনীর” কতিপয় সদস্য মাদকদ্রব্য ক্রয়-বিক্রির ও সেবনের উদ্দেশ্যে অবস্থান করিতেছে। এরুপ তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১, সিপিসি-১ এর কমান্ডার পুলিশ সুপার মোঃ এনায়েত হোসেন মান্নান এর নেতৃত্বে একটি চৌকস আভিযানিক দল উল্লেখিত ঘটনা স্থলে অভিযান পরিচালনা করলে নিম্মলিখিত শীর্ষ সন্ত্রাসী “মামা ভাগিনা বাহিনীর” সেকেন্ড-ইন কমান্ডকে ০১টি অত্যাধুনিক রিভলবার, ০১টি দেশীয় তৈরী অস্ত্র হাসুয়া, ০১টি দেশী তৈরী অস্ত্র চাপাতি ও মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেটসহ গ্রেফতার করা হয়।

ধৃত আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে তার বিরুদ্ধে অস্ত্র,মাদক,ডাকাতি, মারামারি মামলাসহ বিভিন্ন থানায় ০৭টি মামলার কথা স্বীকার করে এবং পূর্বে আরও অনেক মামলা ছিল বলে জানায়। তাদের গ্রুপটি “মাম ভাগিনা” বাহিনী বলে জানা যায়।

উক্ত বাহিনীর প্রধান জনৈক মিঞ্জু মামা বলে জানায়। সে নিজেকে মামা বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড বলে দাবী করে ও বিভিন্ন সন্ত্রাসী কাজে জড়িত তার বাহিনীর অনেকের নাম উল্লেখ্য করেছে। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ ঢাকা জেলার দোহার ও নবাবগঞ্জ থানা এলাকার একটি চিহ্নিত সংঘবদ্ধ অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী গ্রুপ হিসাবে চাঁদা না দিলে বিয়ে বাড়ীতে হামলা, মটর সাইকেল ছিনতাই, মাদক বেচা কেনা ও সেবন, স্থানীয় মেয়েদের যৌন হয়রানী করা, চুরি, মারামারি ইত্যাদি করে মামা ভাগিনা বাহিনীর নামে ত্রাসের রাজত্ব সৃষ্টি করার চেষ্টা করছে এবং বিভিন্ন ভাবে স্থানীয় নেতৃবৃন্দের আশিবার্দ নিয়ে অপরাধ কর্মকান্ডে তৎপর রয়েছে বলে জানায়।

বর্ণিত শীর্ষ সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ঢাকা জেলার দোহার থানায় অস্ত্র মামলা ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে পৃথক পৃথক ০২টি মামলা করা হয়েছে।

error: দুঃখিত!