১৭ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
বুধবার | রাত ১১:৪৪
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
পদ্মা সেতুর সংযোগ সড়কের পিঁচঢালাই শেষ
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ২৪ মে, ২০২২, আরাফাত রায়হান সাকিব (আমার বিক্রমপুর)

স্বপ্নের পদ্মা সেতুর মূল অংশের পিচঁঢালাই শেষে বাকি ছিলো দুই পাড়ের সংযোগ সড়কের পিচঁঢালাই। সময়ের সাথে দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলে সে কাজ। কর্মযজ্ঞের ধারাবাহিকতায় এবার শেষ হলো দুইপাড়ের সংযোগ সড়কের পিচঁঢালাই।

গতকাল সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে সর্বশেষ জাজিরা অংশের সংযোগ সড়কের (সাউথ ভায়াডাক্ট) পিচঁঢালাইয়ের কাজ শেষ করেছে সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলী ও নির্মাণ শ্রমিকরা।

পুরো সেতুর পিচঁঢালাই শেষ হওয়ায় এখন যানচলাচল জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত স্বপ্নের পদ্মা সেতুর সড়কপথ। ছবি: আমার বিক্রমপুর।

পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (মূলসেতু) দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। প্রকৌশলী সূত্রে জানা যায়, যানচলাচল উপযোগী করে তুলতে সেতুতে পিচঁঢালাইয়ের কাজ শুরু হয়েছিলো গত বছরের ১০ নভেম্বর।

৫ মাস ১৯ দিনের মাথায় গত ২৯ এপ্রিল মূল সেতুর ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার মূল অংশে সে কাজ শেষ হয়। এরপরই সমানতালে শুরু হয় দুইপাড়ের সংযোগ সড়কের পিচঁঢালাই।

গত বৃহস্পতিবার (১৯মে) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তের সংযোগ সড়কের পিচঁঢালাইয়ের কাজ শেষ হয়।

সর্বশেষ গতকাল জাজিরা প্রান্তের সংযোগ সড়কের পিচঢালাই শেষ হলো। এদিকে সেতুর অবশিষ্ট কাজের মধ্যে রোড মার্কিং ও সেতুকে আলোকিত করতে বসানো ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ চলছে পুরোদমে। শুরু হয়েছে রেলিং বসানোর কাজ।

প্রকৌশলী সূত্রে জানা যায়, চলতি মাসের মধ্যেই শেষ হবে রোড মার্কিংয়ের কাজ। আর পহেলা জুনে সেতু আলোকিত করার লক্ষ্য নিয়ে এগোচ্ছে বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ। পরিকল্পনা মত নির্ধারিত সময়েই পহেলা জুনে জ্বলে উঠবে বাতি গুলো।

খরস্রোতা পদ্মা নদীর উপর ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি টাকা নিজস্ব অর্থায়নে নির্মাণ হচ্ছে স্বপ্নের পদ্মা সেতু। ২০১৪ সালে নির্মাণ শুরু হওয়া দ্বিতল সেতুর সড়কপথ আগামী ২৫ জুন যান চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হবে।

error: দুঃখিত!