৬ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
বৃহস্পতিবার | রাত ৪:০৫
২০২২ সালের জুন মাসে পদ্মা সেতু চালু হবে- ওবায়দুল কাদের

খবরটি শেয়ার করুন:

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on email

২ মে, ২০২১, (আমার বিক্রমপুর)

পদ্মাসেতুর পুরো স্ট্রাকচারের কাজ শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছেন সড়ক পারিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মূলসেতুর নির্মাণের অগ্রগতি শতকরা ৯৩ দশমিক ২৫ শতাংশ বলেও মন্ত্রী জানান ৷

রোববার (২ মে) সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সকালে সিলেট জোন, বিআরটিসি ও বিআরটএর কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এ কথা জানান।

মন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন থেকে এ সভায় ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হন।

সড়ক পারিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, শনিবার (১ মে) পদ্মাসেতুর মাওয়া প্রান্তে ভায়াডাক্টের সর্বশেষ গার্ডার স্থাপনের মধ্য দিয়ে পুরো সেতুর স্ট্রাকচারের কাজ শেষ হয়েছে। এ পর্যন্ত মূলসেতুর নির্মাণের অগ্রগতি শতকরা ৯৩ দশমিক ২৫ শতাংশ ৷ নদী শাসন কাজের অগ্রগতি শতকরা ৮৩ শতাংশ এবং প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি শতকরা ৮৫ দশমিক ৫ শতাংশ।

ওবায়দুল কাদের আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, আগামী ২০২২ সালের জুন মাসে পদ্মাসেতু যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে।

ঢাকা-সিলেট ও সিলেট-তামাবিল মহাসড়ক প্রকল্পের বিষয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, এই মুহূর্তে অন্যতম অগ্রাধিকার প্রকল্প হচ্ছে এটি, তাই সড়কটি চার লেনে উন্নীত করার বিষয়ে অধিকতর গুরুত্ব দিতে হবে। দীর্ঘদিন এই প্রকল্পের কাজ ঝুলে থাকলেও সম্প্রতি গতি পেয়েছে এবং ইতোমধ্যেই নির্মাণ তদারকি পরামর্শক নিয়োগের লক্ষ্যে এডিবির সম্মতিও পাওয়া গেছে।

ওবায়দুল কাদের এই প্রকল্পটির নির্মাণ দ্রুত শুরু করতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও প্রধান প্রকৌশলীকে এ ব্যাপারে আরও উদ্যোগী হওয়ার আহ্বান জানান।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী সিলেট বিআরটিএকে দুর্নীতির অনিয়ম থেকে বেরিয়ে আসার জন্য সংশ্লিষ্টদের কঠোর নির্দেশ দেন।

তিনি বিআরটিসিকে লোকসানের বৃত্ত থেকেও বেরিয়ে আসতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।

error: দুঃখিত!