২২শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
শুক্রবার | বিকাল ৪:০২
হরগঙ্গা কলেজে দুই ছাত্রলীগ নেতার দ্বন্দে থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১, বিশেষ প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জ সরকারি হরগঙ্গা কলেজ শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি নিবির আহম্মেদ ও সহ সভাপতি রফিকুল ইসলাম রাব্বির মধ্যে দ্বন্দে থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

মুন্সিগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, গতকাল রাত সাড়ে ৮টায় রাব্বি ও নিবির দুজনে দুজনের বিরুদ্ধে মুন্সিগঞ্জ সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

এর আগে গতকাল রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় কলেজ প্রাঙ্গণে দুইজনের মধ্যে উত্তেজনার ঘটনা ঘটে।

সরকারি হরগঙ্গা কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি নিবির আহম্মেদ বলেন, ‘আমরা ছাত্রলীগের উদ্যোগে সেবামূলক কার্যক্রম চালাচ্ছিলাম। কলেজে আগত শিক্ষার্থীদের মধ্যে মাস্ক সহ বিভিন্ন প্রচারণামূলক কাজ চলছিলো। হঠাৎ অফিস কক্ষের সামনে কলেজ শাখা ছাত্রলীগ সহ-সভাপতি রাব্বিসহ পাঁচ-ছয় জন অজ্ঞাতনামা লোক বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করে। পরে আমি গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করি।

কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি রফিকুল ইসলাম রাব্বি বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে কলেজ কর্তৃপক্ষ অবৈধভাবে ২৫০ টাকা নিচ্ছে। আমি তারই প্রতিবাদ জানাচ্ছিলাম। এ সময় কলেজ শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি নিবির আহম্মেদের সঙ্গে এ নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে সে আমার পাঞ্জাবির কলার ছিঁড়ে ফেলে।’

সরকারি হরগঙ্গা কলেজের অধ্যক্ষ আবদুল হাই তালুকদার বলেন, ‘কলেজের শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ নেতা রাব্বি সাধারণ শিক্ষার্থীদের ফরম নিয়ে টানাহেঁচড়া করেছে। তারপর কলেজ গেটের বাইরে আওয়াজ শুনেছি, সেখানে তর্ক হয়েছে। তাৎক্ষণিক পুলিশ ডাকা হয়েছে।’

অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘প্রসপেক্টাস, ডিজিটাল আইডি কার্ড, বায়োমেট্রিক ফিঙ্গার প্রিন্ট ফি সহ বিবিধ বিষয়ে ২৫০ টাকা রশিদ দেওয়া সাপেক্ষে নেওয়া হচ্ছে, যা বৈধ।

মুন্সিগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মো. রাজীব খান বলেন, ‘ঘটনাস্থলে গিয়ে মারধরের আলামত পাওয়া যায়নি। তবে তাদের মধ্যে তর্ক হয়েছে। লিখিত অভিযোগ অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

error: দুঃখিত!