১৫ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সোমবার | রাত ৪:০৬
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মোল্লাকান্দিতে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে হামলা-পাল্টা হামলা, কয়েক শতাধিক ককটেল বিস্ফোরণ
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ১৪ নভেম্বর, ২০২১, সদর প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের মোল্লাকান্দি ইউনিয়নে আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে হামলা-পাল্টা হামলা, বাড়িঘর ভাঙচুর, লুট ও কয়েক শতাধিক ককটেল ও গুলির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ঘটনাস্থল থেকে দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ।

আজ রোববার (১৪ নভেম্বর) সকাল ১১টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের ৭,৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের নোয়াদ্দা, লক্ষ্মিদিবি, মহেশপুর, ঢালীকান্দি এলাকায় থেমে থেমে কয়েক দফায় এইসব ঘটনা ঘটে। আশেপাশের এলাকাগুলোতেও এই ঘটনার উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

জানা যায়, ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী রিপন হোসেন সমর্থিত ৭ নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী মেজবাউদ্দিন ঢালী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মহসিনা হক কল্পনা সমর্থিত মেম্বার পদপ্রার্থী আমজাদ হোসেন বাবু কাজীর মধ্যকার বিবাদ সহিংসতায় রুপ নেয়।

আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী রিপন হোসেন জানান, স্বতন্ত্র প্রার্থী মহসিনা হক কল্পনার সমর্থকরা নোয়াদ্দা এলাকায় তার সমর্থক অন্তত ১০০ বাড়িতে ভাঙচুর চালায়। এসময় কয়েক শতাধিক ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে এলাকায় উত্তেজনা সৃষ্টি করে। তার দাবি, নির্বাচনী প্রচারণায় বাঁধা সৃষ্টি করতে স্বতন্ত্র প্রার্থী কল্পনার নির্দেশে এই ঘটনা ঘটানো হয়।

স্বতন্ত্র প্রার্থী মহসিনা হক জানান, আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী রিপন হোসেন বেশ কয়েকদিন ধরেই তার লোকজনকে এলাকায় থাকতে দিচ্ছেন না। তার হামলায় আহত হয়ে কয়েকজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। হামলার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার লোকদের উপর রিপন হোসেনের লোকজন হামলা করেছে। নির্বাচনী প্রচারণায় বাঁধা সৃষ্টির অভিযোগ তিনি অস্বীকার করেন।

মুন্সিগঞ্জ সদর থানার ওসি (তদন্ত) রাজিব খান রাত সাড়ে ৮ টা’র দিকে ‘আমার বিক্রমপুর’ কে জানান, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন পক্ষ থেকে অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তবে পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িতদের শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনার চেষ্টা করছে। আটক ২ জন কোন পক্ষের সমর্থক তা জানা সম্ভব হয়নি।

error: দুঃখিত!