১৫ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সোমবার | সকাল ৬:০১
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মুন্সিগঞ্জে পুলিশ ও সরকারদলীয় কর্মীদের বিরুদ্ধে বিএনপির মামলা
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ৬ অক্টোবর, ২০২২, বিশেষ প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষের সময় যুবদল কর্মী শহীদুল ইসলাম শাওন (২৩) নিহতের ঘটনায় পুলিশ ও সরকার দলীয় কর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে বিএনপি।

বিএনপি’র কৃষক দলের নির্বাহী কমিটির সদস্য সালাহ্ উদ্দিন খান বাদী হয়ে মুন্সিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মিনহাজ উল ইসলাম কে প্রধান অভিযুক্ত করে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমন দেব ও সদর থানার ওসি তারিকুজ্জামানসহ ৯ পুলিশ সদস্যের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা আরও ৪০/৫০ জন পুলিশ সদস্য ও ২০০/৩০০ জন সিভিল ড্রেস পরিহিত অস্ত্রধারী সরকারদলীয় সন্ত্রাসী উল্লেখ করে বাংলাদেশ দন্ডবিধির ৩২৩, ৩২৫, ৩২৬, ৩০৭, ৩০২ ও ৩৪ ধারায় এই মামলা দায়ের করেন। মামলা নম্বর ৭১৭/২০২২।

পাবনা জেলার সাথিয়া উপজেলার পারগোপালপুর এলাকার শহীদ আব্দুর রাজ্জাক খানের ছেলে সালাহ্ উদ্দিন খান (৬৪) একসময় পুলিশের সদস্য ছিলেন। ২০১০ সালে তাকে বাধ্যতামূূলক অবসরে পাঠানো হয়। পরে তিনি বিএনপির রাজনীতির সাথে যুক্ত হন।

এদিকে মামলার পরবর্তী আদেশের জন্য আগামী সোমবার (১০ অক্টোবর) ধার্য করেছেন মুন্সিগঞ্জ আদালত-১ এর বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোসাম্মৎ রহিমা আক্তার।

মুন্সিগঞ্জ কোর্ট পুলিশের ওসি মোহাম্মদ জামাল হোসেন জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে শুনানী হয়েছে। তবে আদালতের বিচারক অভিযোগটি শুনানি শেষে আদেশের জন্য অপেক্ষমাণ রেখেছেন।

প্রসঙ্গত, গত ২১ সেপ্টেম্বর বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে জেলা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে মুন্সিগঞ্জের মুক্তারপুর এলাকায় পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষের সময় গুরুতর আহত হন মিরকাদিমের মুরমা এলাকার যুবদল কর্মী শাওন। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান তিনি। ওই ঘটনায় পুলিশ, সাংবাদিকসহ আহত হয় অন্তত ৫০ জন। পরে পুলিশ ও শ্রমিকলীগ নেতা বাদী এ ঘটনায় মুন্সিগঞ্জ সদর থানায় দুইটি মামলা দায়ের করে। একটি মামলায় নিহত শাওনকেও আসামি করা হয়েছে।

error: দুঃখিত!