৩১শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
শনিবার | রাত ১২:৫৮
মুন্সিগঞ্জের তামিমকে নিয়ে ঐদিন রাতে ক্লাবে যান পরীমণী
খবরটি শেয়ার করুন:
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on email

মুন্সিগঞ্জ, ১৮ জুন, ২০২১, বিশেষ প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

ঢাকাই চলচ্চিত্রের আলোচিত অভিনেত্রী পরীমনির বিরুদ্ধে রাজধানীর গুলশানের অল কমিউনিটি ক্লাবে ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে। ক্লাব কর্তৃপক্ষ বলছে, এক সহযোগীর ‘ড্রেসকোড’ নিয়ে প্রশ্ন করতেই চটে যান তিনি, ভাঙেন বেশ কিছু আসবাব।

সেদিন রাতে পরীমনির সাথে ছিলো তার সাবেক বাগদত্তা সাংবাদিক তামিম হাসান। ২০১৯ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি তাদের বাগদান হয়। এরপর ঐবছরই তাদের সম্পর্কের অবনতি ঘটে। ২০২০ সালের মার্চে পরী বিয়ে করেন কামরুজ্জামান রনি কে। সেই সম্পর্কও বেশি দিন টিকেনি।

পরীমনির সাবেক প্রেমিক বিনোদন সাংবাদিক তামিম হাসান মুন্সিগঞ্জের টংগিবাড়ী উপজেলার নয়ানন্দ গ্রামের ছেলে।

৭ জুন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় এই নায়িকা ও তার সঙ্গে আরও কয়েকজন ওই ক্লাবে গিয়ে গ্লাস ভাঙচুর করেছেন বলে অল কমিউনিটি ক্লাবের প্রেসিডেন্ট কেএম আলমগীর ইকবাল দাবি করেন।

ওই রাতে ক্লাবে গিয়েছিলেন কিনা জানতে চাইলে পরীমনি বলেন, হ্যাঁ গিয়েছিলাম।  সেটা সিসিটিভির ফুটেজে আপনারা দেখেছেন।  আমি যদি অপ্রীতিকর কোনো ঘটনা ঘটিয়ে থাকি তাহলে আটদিন পর কেন আসলো। তারা তো আমার মতো ভিকটিম হয়নি। তাদের কোনো বাধা ছিল না, পরের দিন বা সঙ্গে সঙ্গে কমপ্লেইন করার। এটা খুবই স্পষ্ট, সবাই এটা বুঝতে পারছে।

জানা গেছে, বোট ক্লাবের ঘটনার দুই দিন আগে ৭ জুন গভীর রাতে চিত্রনায়িকা পরীমনি গুলশানের ১৩৭ নম্বর রোডে অল কমিউনিটি ক্লাব লিমিটেডে ভাংচুর করেন। এ সময় ওই ক্লাবে থাকা বেশ কয়েকজন বার কর্মীকে মারধরও করেন বলে অভিযোগ এই নায়িকার বিরুদ্ধে।

গত ৯ জুন মধ্যরাতে সাভারে অবস্থিত ঢাকা বোট ক্লাবে চিত্রনায়িকা পরীমনিকে ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টা করা হয় বলে তিনি অভিযোগ করেন। ঘটনার চার দিন পর রোববার রাত ৮টার দিকে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়ে এবং রাত ১১টার দিকে সংবাদ সম্মেলন করে এ ঘটনা প্রকাশ করেন নায়িকা পরীমনি।

সোমবার সকালে ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে সাভার থানায় মামলা করেন তিনি। ওই দিনই প্রধান আসামি নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও অমিসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। তাদের কাছ থেকে মাদক ও ইয়াবা জব্দ করা হয়।

error: দুঃখিত!