২৮শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
শনিবার | রাত ৩:৪৩
টংগিবাড়ী হানাদার মুক্ত দিবস পালিত
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ১৫ নভেম্বর, ২০২২, আরাফাত রায়হান সাকিব (আমার বিক্রমপুর)

নানা কর্মসূচি ও যথাযথ মর্যাদায় মুন্সিগঞ্জের টংগিবাড়ী থানা হানাদার মুক্ত দিবস পালিত হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার ১৫ই নভেম্বর দিবসটি উপলক্ষ্যে সকালে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, পতাকা উত্তোলন ও র‌্যালি বের হয়।

র‌্যালিটি উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স থেকে বের হয়ে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে টংগিবাড়ী থানা ফটক হয়ে পুনরায় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের সামনে এসে শেষ হয়।

এতে অংশ নেয় বীর মুক্তিযোদ্ধা সহ উপজেলা প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কর্মকতা, জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ।

এদিকে সকালে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে স্থানীয় একুশ বিক্রমপুর-টংগিবাড়ী সংগঠনের আয়োজনে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ফুল দিয়ে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। এসব কর্মসূচিতে অন্যদের মধ্যে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুহা. রাসেদুজ্জামান, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজিব খান, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও একুশ বিক্রমপুর-টংগিবাড়ী সংগঠনের পৃষ্টপোষক ইঞ্জিনিয়ার কাজী ওয়াহিদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অন্যদিকে সন্ধ্যায় জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সোহানা তাহমিনার উদ্যোগে উপজেলার পাঁচগাও ইউনিয়নের স্থানীয় একটি মসজিদে শহীদ ও মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য দোয়া ও মিলাদ অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখ্য, ১৯৭১ সালের ১৪ নভেম্বর রাতে টংগিবাড়ী থানায় মুক্তিসেনাদের প্রবল আক্রমনের মুখে পাকিস্তানি হানাদার বাহীনি আত্মসমর্পণ করে। থানা ভবন দখল করে নেয় মুক্তিসেনারা। রাজাকার ও পাকিস্তানি বাহিনী ধলেশ্বরী নদী হয়ে পালিয়ে যায় নারায়ণগঞ্জ। এর মধ্য দিয়ে হানাদার মুক্ত হয় টংগিবাড়ী থানা। সকাল হতেই মুক্ত আকাশে উড়ে লাল সবুজের পতাকা

error: দুঃখিত!