২০শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
বৃহস্পতিবার | সন্ধ্যা ৭:০৩
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
‘পদ্মা রিসোর্ট’ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ১ অক্টোবর, ২০২০, বিশেষ প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলার পদ্মার শাখা নদী সংলগ্ন চরে অবস্থিত ছিলো পদ্মা রির্সোট। পদ্মার নয়নাভিরাম সৌন্দর্য উপভোগ আর বর্ণিল কাঠের কটেজে অবকাশ যাপনের জন্য জেলা তথা বহু দূরদুরান্ত থেকে মানুষ ছুটে আসতো ব্যাতিক্রমি রির্সোটটিতে। তবে এবার পদ্মার গ্রাসে শেষ রক্ষা হয়নি রিসোর্টটির।

বৃহস্পতিবার ভোর রাতে ভাঙন শুরু হলে এর মধ্যেই রির্সোর্টের ৪একর জমির মধ্যে ২ একর জমি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। আর বেশ কিছু কটেজের অংশ নদীতে বিলীন হওয়ার পরপরই পদ্মার ভাঙনের আগেই ১৬টি কটেজের ১২টি কটেজ ইতিমধ্যে কতৃপক্ষ ভেঙে মালামাল অন্যত্র ছড়িয়ে নিয়ে নিয়েছে। বাকিগুলো ভাঙার কাজ চলছে

বিষয়টি নিশ্চিত করে রিসোর্টের পরিচালক সাদেক হোসেন মান্নান জানান,

‘রির্সোটের সামনের অংশের ২ একর পুরোটাই ভেঙে গেছে। আমাদের প্রচুর ক্ষতি হয়েছে, বেশ কিছু স্থাপনা ভেঙে যাওয়ার পর ক্ষতি কমানোর জন্য কটেজগুলো ভেঙে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার কাজ করা হচ্ছে। ১৬টির মধ্যে আর ৪টি কটেজ আছে। সেগুলো ভেঙে ফেলা হবে।’

পরবর্তীতে আবারো রির্সোট পরিকল্পনার কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, বহুমানুষ রির্সোটটি চিনে, বেড়াতেও আসে। যদি ভাঙন থেমে যায় তবে আবারো পুনরায় রিসোর্টটি নির্মাণের ইচ্ছা আছে। তবে পুরো জায়গা বিলীন হলে সেটি আর সম্ভব হবে না।

এদিকে এবছর পদ্মার ভাঙনের কবলে এরমধ্যে লৌহজং উপজেলার ৮টি গ্রাম সর্ম্পূন নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। বেশ কয়েকদিন যাবত আবারো ভাঙন দেখা দিয়েছে পদ্মা রিসোর্টের উত্তর দিঘলী ও ভোজগাঁও গ্রামে।

error: দুঃখিত!