১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
মঙ্গলবার | রাত ৪:৫৬
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
একদিনে ৮ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করলেন এমপি মৃণাল কান্তি দাস
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ১৫ মার্চ, ২০২৩, নিজস্ব প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় একদিনে ৮ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করেছেন মুন্সিগঞ্জ ৩ আসনের সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির ‍মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস।

গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টা’র দিকে উপজেলার বালুয়াকান্দি ইউনিয়নের বালুয়াকান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, তেতৈতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ছোট রায়পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বড় রায়পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, এবং আড়ালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ছাড়াও সর্বমোট ৮ টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিদর্শনে যান তিনি। এসময় তিনি ওইসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে করণীয় সম্পর্কে অবহিত হন এবং শিক্ষার মান্নোনয়নে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

পরে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন বালুয়াকান্দি ডা. আব্দুল গফফার স্কুল ও কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে।

সেখানে বক্তব্যে সংসদ সদস্য মৃণাল কান্তি দাস বলেন, আগামী প্রজন্মকে শিক্ষার আলোয় আলোকিত মানবিকতায় সমৃদ্ধ তথ্যপ্রযুক্তি ও জ্ঞানবিজ্ঞানে দক্ষ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। যদি আমরা আগামী প্রজন্মকে আধুনিক, উন্নত, সভ্য ও অগ্রবর্তী চিন্তার পথিকৃৎ হিসেবে গড়ে তুলতে চাই তাহলে অবশ্যই তাদেরকে সুশিক্ষিত হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। আকাশ ছোঁয়া উন্নতির শিখরে আরোহন করতে হলে শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। জীবনকে বিকশিত ও আলোকিত করতে হলে অবশ্যই নতুন প্রজন্মকে আদর্শ শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। শিক্ষার আলো মানুষের মনকে আলোকিত করে, বিকশিত করে মানবিক গুণাবলীকে।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার সরকার শিক্ষাবান্ধব সরকার। শিক্ষাকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে তিনি দেশ পরিচালনা করছেন। আমরা মনে করি, আজকের বিশ্ব জ্ঞান ও বিজ্ঞানের বিশ্ব। শিক্ষার ক্ষেত্রে যে-জাতি যত সাফল্য অর্জন করবে, সে-জাতি জীবন-জীবিকার মানোন্নয়নে ও মানবিক গুণাবলি বিকাশে ততটাই অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি লাভ করবে। অঙ্গীকার অনুযায়ী বর্তমান শিক্ষাবান্ধব সরকার শুরু থেকেই শিক্ষার অধিকার ও মানোন্নয়নের ওপর অন্যতম অগ্রাধিকার খাত হিসেবে গুরুত্বারোপ করে আসছে। ফলশ্রুতিতে মানবসম্পদ উন্নয়ন ও শিক্ষালাভ প্রসারে অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জিত হয়েছে।

এসময় গজারিয়া উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান রেফায়েত উল্লাহ খান তোতা, বালুয়াকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুজ্জামান জুয়েল সরকার, ইমামপুর ইউপি চেয়ারম্যান হাফিজুজ্জামান খান জিতু, টেঙ্গারচর ইউপি চেয়ারম্যান কামরুল হাসান ফরায়েজি ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

error: দুঃখিত!