৩১শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
শনিবার | রাত ২:১৫
সহজ উপায়ে রুটি অনেকক্ষণ পর্যন্ত নরম রাখবেন কীভাবে? জানুন…
খবরটি শেয়ার করুন:
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on email

গোল, ফুলকো, সাদা রুটি। তার সঙ্গে কষা মাংস। ভাবলেই খিদে পেয়ে যায়। কিন্তু খেতে বসে এ রকম স্বপ্নের মতো রুটি হাতে আসে না। রুটি বানাতে গিয়ে মাথার ঘাম পায়ে পড়েনি এমন মানুষের দেখা পাওয়া ভার। সব কিছু হয়ে গেলেও কিছুতেই যেন ম্যানেজ হতে চায় না রুটি। গোল, চৌকো যেমন আকারেরই হোক না কেন খেতে গিয়ে দেখা গেল একদম চামড়ার মতো শক্ত হয়ে গিয়েছে। বরং টেনে ছিঁড়ে মুখে পুরে জাবর কাটতে কাটতে রুটি খাওয়ার মজাই নষ্ট হয়ে যায়। সাধের রুটি পেতে কয়েকটি কথা মাথায় রাখলেই চলবে। তবে আটা খুব বেশি শক্ত মাখবেন না। আবার খুব নরমও নয়। মাঝারি মাখুন। মাখা ভালো হয়েছে তখনই বুঝবেন যদি আঙুলে একটুও না লাগে। রুটি বানানোর চার-পাঁচ ঘণ্টা পরে খেলেও রুটি একই রকম নরম থাকবে কী করে, রইল সেই টিপস।

রুটির আটা যেভাবে মাখবেন
ভুষিযুক্ত আটা ব্যবহারের চেষ্টা করুন। কারণ তার মধ্যে ফাইবার থাকে বেশি পরিমাণে। যটা রুটি করবেন সেই মাপে আটা নিন। এবার ওর মধ্যে এক চিমটে নুন দিন। এক চামচ সাদা তেল দিন (১০ টা রুটি বানালে এক চামচ)। এবার ইষদুষ্ণ গরম জল দিয়ে মেখে ফেলুন। গরম জলে রুটি মাখলে রুটি যেমন নরম হয় তেমনই হজমেও সাহায্য করে। আর সেই রুটির স্বাদও অন্যরকম হয়। আটা মাখা হলে অন্তত ১৫ মিনিট ঢাকা দিয়ে রাখুন। খুব বেশি ৩০ মিনিট রাখবেন। তার বেশি রাখলে কিন্তু আটা নরম হয়ে যাবে। তখন বেলতে সমস্যা হবে।

নরম রুটি রাখতে হলে এই টিপসগুলি মেনে চলুন

১. রুটি মাখার আগে আটায় অল্প নুন দিয়ে মাখুন।

২. আটার মণ্ড বানানোর সময়ে ঈষদুষ্ণ জল ব্যবহার করুন।

৩. আটা মাখা হয়ে গেলে ভিজে পাতলা কাপড় দিয়ে তা এক ঘণ্টা ঢেকে রাখুন।

৪. রুটি করার আগে আর এক বার ভাল করে ঠেসে ঠেসে মেখে নিন এই আটার মণ্ড।

৫. লেচি কাটার আগে দেখুন, তা নরম আছে কি না! আটা বা ময়দা বেশি টাইট মাখলে কিন্তু রুটি ফুলবেও না, নরমও থাকবে না। তাই মণ্ডটা একটু নরম আছে কি না দেখে নিন। প্রয়োজনে একটু জল মিশিয়ে নিতে পারেন।

৬. বেলন চাকির উপরে ভাল করে আটা ছড়িয়ে লেচি বেলে রুটির আকার দিন। বেলার সময়ে রুটি ঘুরছে কি না খেয়াল রাখুন। যতটা সম্ভব পাতলা করে রুটি বেলবেন।

৭. চাটুতে সেঁকে সঙ্গে সঙ্গে আগুনের উপরে রুটি দিয়ে ফুলিয়ে নিন। রুটির এক একটা দিক আগুনের উপরে ১৫-২০ সেকেন্ডের েবশি রাখবেন না। এতে রুটি পুড়েও যাবে, শক্তও হয়ে যাবে।

৮. রুটি নামিয়ে তার এক দিক হালকা হাতে জলের উপরে বুলিয়ে নিন। তার পরে ক্যাসারোলে ভরে রাখুন। এ ভাবে রুটি অনেকক্ষণ পর্যন্ত নরম থাকে।

৯. তন্দুরি রুটি দোকান থেকে কিনে এনে কয়েক ঘণ্টা পরে খেলে তা শক্ত হয়ে যায়। তন্দুরি গরম করতে একটা পাত্রে গরম জল নিয়ে তার উপরে জালি রেখে তন্দুরিতে একটু স্টিম দিয়ে নিতে হবে। এতে তন্দুরি রুটি গরম ও নরম হবে।

১০. রুটি কখনই দ্বিতীয়বার গরম করবেন না। তাহলে তা আরও শক্ত হয়ে যাবে।

error: দুঃখিত!