২০শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
বৃহস্পতিবার | বিকাল ৫:৪৭
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
সংঘর্ষে উত্তাপ; বিএনপি মুখোমুখি টংগিবাড়ীতে, আটক ১০
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জের টংগিবাড়ী উপজেলায় বিএনপির দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ১০ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

টঙ্গীবাড়ি থানার ওসি আওলাদ হোসেন জানান, উপজেলার টংগিবাড়ী বাজারে বুধবার বেলা ১১টার দিকে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

তিনি বলেন, বিএনপির মনোনয়ন পাওয়া দলের কেন্দ্রীয় কোষাধ্যক্ষ মিজানুর রহমান সিনহার অনুসারীদের সঙ্গে জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আলী আজগর মল্লিক রিপনের সমর্থকদের এ সংঘর্ষের সময় হাতবোমা বিস্ফোরণ এবং ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

“খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আক্তার মোল্লা এবং টঙ্গীবাড়ি উপজেলা যুব দলের সাধারণ সম্পাদকসহ দশ জনকে আটক করা হয়।”

নতুন কোনো সংঘর্ষ এড়াতে ঘটনাস্থলে বাড়তি পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানান ওসি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সংঘর্ষের সময় বেশ কয়েক দফায় হাতবোমার বিস্ফোরণ ও গোলাগুলির শব্দ শোনা গেছে। পরে পুলিশ গিয়ে হাতবোমা ও দেশীয় অস্ত্রসহ দশজনকে আটক করে।

পরে মিজানুর রহমান সিনহা টঙ্গীবাড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী রির্টানিং কর্মকর্তা হাসিনা আক্তারের কাছে তার মনোনয়ন জমা দেন।

মিজানুর রহমান সিনহা বলেন, লৌহজংয়ের কলমার নিজ বাড়ি থেকে তিনি কর্মীদের নিয়ে ‘শান্তিপূর্ণভাবে’ মনোনয়ন জমা দিতে যাচ্ছিলেন। এই সময় তার বিপক্ষের লোকজন হামলা চালায়।এ সময় ৭/৮ জন কর্মী আহত হয়।

আলী আজগর মাল্লিক রিপন বলেন, এ ঘটনায় তার পক্ষের ১০/১২ কর্মী আহত হয়েছে। এবং পুলিশ কয়েকজনকে আটক করে।

error: দুঃখিত!