৩০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
বৃহস্পতিবার | বিকাল ৩:২১
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
শিমুলিয়া ঘাট থেকে: ফেরিতে জায়গা নেই, তবুও ছুটছে মানুষ
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ১৩ এপ্রিল, ২০২১, প্রধান প্রতিবেদক (আমার বিক্রমপুর)

কাল থেকে সারাদেশে ‘সর্বাত্মক লকডাউন’ ঘোষনা করেছে সরকার। তবে লকডাউনের মেয়াদ তৃতীয় দফায় আবার বাড়ানো হবে কি না সেটা নিয়ে পুরোপুরি দুশ্চিন্তামুক্ত নন ঢাকায় কর্মরত বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ। তাই আপাতত ছুটছেন বাড়ির দিকে।

পদ্মা পাড়ি দিতে সকাল থেকেই শিমুলিয়া ঘাটে এসেছেন ঢাকায় কর্মরত বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ। ছবি: আমার বিক্রমপুর।

দক্ষিণবঙ্গের প্রবেশদ্বার খ্যাত মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলার শিমুলিয়া ঘাটে আজ মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) ভোর ৬ টা থেকেই ছিলো যানবাহন ও সাধারণ মানুষের চাপ। বাস-ট্রাক সহ যে যেভাবে পারছেন পদ্মার পাড়ে এসে ভিড় করছেন। এরপর সুবিধামত কেউ ফেরিতে, কেউ কেউ স্পিডবোটে আবার কেউ পদ্মা পার হচ্ছেন ট্রলারে করে। গনপরিবহন বন্ধ থাকার নির্দেশনায় বন্ধ রয়েছে লঞ্চ চলাচল।

ফেরিতে অন্যান্যসময়ের জনপ্রতি ২৫ টাকা ভাড়া নিলেও স্পিডবোটের ভাড়া হয়ে গেছে দ্বিগুণ। অন্য সময় স্পিডবোটের ভাড়া ১৫০ টাকা হলেও আজ গুনতে হচ্ছে ৩০০ টাকা। আর ট্রলারে জনপ্রতি ২০০ টাকা করে দিয়ে পদ্মা পাড়ি দিচ্ছেন সাধারণ মানুষ।

সকাল থেকেই প্রতিটি ফেরিতে দেখা গেছে সাধারণ যাত্রীদের বেপরোয়া চাপ। ছবি: আমার বিক্রমপুর।

বিআইডাব্লিউটিসি শিমুলিয়া ঘাট কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, যাত্রী ও যানবাহন পারাপারে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে বর্তমানে ১৫টি ফেরি চলাচল করছে।

বিআইডাব্লিউটিসি শিমুলিয়া ঘাটের উপ মহাব্যবস্থাপক শফিকুল ইসলাম জানান, লঞ্চ বন্ধ থাকার কারনে ফেরিতে যাত্রীদের বেশি চাপ পরেছে। যাত্রীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য বারবার আহবান জানানো হচ্ছে।

error: দুঃখিত!