৩০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
বৃহস্পতিবার | বিকাল ৩:৫৩
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
লৌহজংয়ে মুক্তিযোদ্ধা যাচাই বাছাই স্থগিত
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা যাচাই বাছাই স্থগিত করা হয়েছে।

পূর্ব নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী গতকাল মঙ্গলবার ৭ ফেব্রুয়ারী যাচাই বাছাইর তারিখ নির্ধারন করা থাকলেও হাইকোর্টের নির্দেশে তা স্থগিত করা হয়েছে।

উপজেলা যাচাই বাছাই কমিটির সদ্যস্য আলহাজ্জ খলিলুর রহমান কমান্ডার জানান, পূর্ব নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী মঙ্গলবার উপজেলার মেদিনী মন্ডল ও কুমারভোগ ইউনয়নের মুক্তিযোদ্বাদের যাচাই বাছাই হওয়ার কথা থাকলেও সকাল ১০ টায় ওই দুটি ইউনিয়নের প্রায় ৩ শতাধিক মুক্তিযোদ্ধা উপজেলায় এসে জানতে পারে যাচাই বাছাই স্থগিত করা হয়েছে। বেলা ১টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: মনির হোসেন উপজেলা অডিটরিয়ামে অপেক্ষাকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের জানান, মুক্তিযোদ্ধাদের যাচাই বাছাই এর উপর হাইকোর্টের স্থগিত আদেশ থাকায় যাচাই বাছাই অনির্দিষ্টকালের জন্যে বন্ধ থাকবে।

এর পরই হল রুমে জমায়েত হওয়া মুক্তিযোদ্ধাদের অনেকেই হাইকোর্টের স্থগিত বিষয়টি নিয়ে নির্বাহী অফিসারের কাছে যানতে চান। এক সাথে অনেকে কথা বলতে গেলে এ সময় অনেকটা হট্টগোলের মত পরিবেশ সৃষ্টি হয়। পরে তা আবার স্বাভাবিক হয়ে যায়। তবে যাচাই বাছাই স্থগিতের বিষয়টি মুক্তিযোদ্বাদের আগে না জাননোর কারণে মুক্তিযোদ্ধারা চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

উল্লেখ্য যাচাই বাছাই কমিটি থেকে বর্তমান নির্বাচিত উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো: মাহাবুব আলম বাহারের নাম বাদ পড়ায় সে হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন করলে হাইকোট যাচাই বাছাইয়ের কার্যক্রম স্থগিত করে।

এ ব্যাপারে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. মাহাবুব আলম বাহার জানান, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার পদাধিকার বলে যাচাই বাছাই কমিটির সদস্য থাকার বিধান রয়েছে। সে মতে আমি যাচাই বাছাই কমিটিতে থেকে একটি সভা করে মুক্তিযোদ্ধাদের যাচাই বাছার করার জন্য ১০টি ইউনিনকে ৫টি ভাগে করে যাচাই বাছাউয়ের তারিখ দেই। কিন্তু পরবর্তীতে জানাতে পারি মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ের ওয়েব সাইটে প্রকাশিক কমিটিতে আমার নাম নেই। এ কারণে আমি গত রোববার হাইকোটে একটি রিট আবেদন করি। হাইকোটের একটি ব্রেঞ্চ সোমবার এ যাচাই বাছাই স্থগিত রেখে মঙ্গলবার শুনানির দিন ধার্য্য করে। কিন্তু কস লিষ্টে নাম পিছনে থাকায় মঙ্গলবার শুনানি হয়নি। বুধবার আবারো শুনানি হবার কথা রয়েছে।

লৌহজং উপজেলা নির্বাহী কমকর্তা মো. মনির হোসেন জানিয়েছেন, হাইকোর্টের স্থগিতাদেশের কথা জানিয়ে আইনজীবির একটি চিঠি আমার হস্তগত হয়েছে। যে কারণে যাচাই বাছাই স্থগিত রাখা হয়েছে।

error: দুঃখিত!