২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
শুক্রবার | বিকাল ৫:৫৭
মুন্সিগঞ্জ থেকে ডাকাতি করে পালানোর সময় আটক ১৩
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ২৫ ডিসেম্বর, ২০২২, নিজস্ব প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের মুক্তারপুর এলাকা থেকে ডাকাতি করে পালানোর সময় ১৩ অভিযুক্তকে আটক করেছে নৌপুলিশ।

গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় চাঁদপুরের মতলব উত্তর থানার এখলাছপুর এলাকার মেঘনা নদী থেকে ডাকাতির সরঞ্জামসহ তাদের আটক করা হয়। এসময় ডাকাত দলের সঙ্গে পুলিশের গুলি বিনিময় হয়। পুলিশের গুলিতে একজন আহতও হয়।

আটককৃতরা হলেন, মুন্সিগঞ্জের টংগিবাড়ী উপজেলার দিঘীরপাড় ইউনিয়নের মোস্তফা মিজির ছেলে সাব্বির মিঝি (২৩), চানমিয়া সরকারের ছেলে মহিউদ্দিন সরকার (৪১), ফারুক গাজীর ছেলে আল আমিন (২০), শাহজালালের ছেলে ইমরান (২২), সিরাজ মিজির ছেলে ফিরুজ মিজি (২৬), জুলহাস বেপারীর ছেলে জীবন বেপারী (২০), তোফায়েল আহমেদের ছেলে আনোয়ার হোসেন (২৪), মোহাম্মদ বেপারীর ছেলে জহিরুল ইসলাম (২৭), ইদ্রিস হাওলাদারের ছেলে আক্তার হোসেন (২২), মোহাম্মদ বেপারীর ছেলে সাহিন মিয়া (২০), জিবুল বেপারীর ছেলে সুজন বেপারী (২৭), বাসেদ বেপারীর ছেলে কাসেম বেপারী (২৪) ও আব্দুল হাওলাদারের ছেলে সালা উদ্দিন  (২৮)।

নৌ পুলিশের মোহনপুর নৌ ফাঁড়ির পরিদর্শক মনির হোসেন জানান, এই ১৩ ডাকাত শনিবার বিকেলে মুন্সিগঞ্জের মুক্তারপুর এলাকার একটি খালে ডাকাতি করে পালিয়ে যাচ্ছিল। এসময় ঘটনাটি পুলিশকে জানানো হয়। পরে নৌ পুলিশের কয়েকটি দল বিভক্ত হয়ে মেঘনা নদীতে অভিযান শুরু করে। একপর্যায়ে ডাকাত দল স্পিডবোট নিয়ে এখলাছপুর এলাকায় এসে পালানোর চেষ্টা করে। এসময় পুলিশের সঙ্গে তাদের গুলি বিনিময় হয়। পরে সাঁড়াশি অভিযানের ফলে তখনই নৌ পুলিশের জালে ধরা পড়ে ডাকাত দল।

ডাকাতদের কাছ থেকে  ২৬টি এন্ড্রয়েড ও ৩৩টি বাটন মোবাইল সহ মোট  ৫৯টি মোবাইল, ১০টি রামদা, ২টি পাইপ গান, ৪টি ছুরি, ১টি সাবাল, ৪ রাউন্ড গুলি, ৬টি বোমা উদ্ধার করা হয়েছে ৷

পুলিশের গুলিতে এক ডাকাত আহত হয়। তাকে মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ডাকাত দলের নাম পরিচয় জানতে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

error: দুঃখিত!