২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
রবিবার | সকাল ৮:৪৪
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মুন্সিগঞ্জের বাজারে বাজারে ৩৬ টাকা কেজিতে আলু বিক্রি শুরু
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩, নিজস্ব প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

দেশে আলুর দাম নিয়ে নৈরাজ্য দূরীকরণে এবার নতুন উদ্যোগ নিয়েছে মুন্সিগঞ্জ জেলা প্রশাসন এবং আলু চাষী ও ব্যবসায়ী সমিতি।

জেলা প্রশাসনের তত্বাবধানে এ সমিতি ভ্রাম্যমান ট্রাকের মাধ্যমে সরকার নির্ধারিত ৩৬টাকা মূল্যে ভোক্তা পর্যায়ে আলু বিক্রিতে চালু করেছে ট্রাকসেল কর্মসূচি।

বৃহস্পতিবার বিকেলে জেলার কালেক্টরেট মাঠ প্রাঙ্গণে এ কর্মসূচির উদ্ধোধন করেন জেলা প্রশাসক মো: আবু জাফর রিপন।

এদিন বিক্রির জন্য ৭টি ট্রাকে ১৫টন আলু নিয়ে আসে ব্যবসায়ীরা। উদ্ধোধনের পরে তা ভোক্তা- ক্রেতাদের মাঝে বিক্রি করা হয়।

আলু চাষী ও ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি দেলোয়ার হোসেন জানান, আলুর উচ্চমূল্য নিয়ন্ত্রণ ও ভোক্তাদের সুবিধার জন্য এ কর্মসূচি উদ্ধোধন করা হয়। এখন থেকে জেলার হিমাগার হতে ট্রাকে করে সরাসরি ভোক্তা পর্যায়ে সরকার নির্ধারিত মূল্যে বিক্রি হবে আলু। বাজার পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত এ কার্যক্রম চলবে। দিনে দৈনিক ৪০টন বিক্রির টার্গেট থাকবে। জেলার প্রতিটি বাজারে পৌছে যাবে আলু ভর্তি ট্রাক। প্রয়োজন অনুযায়ী সকল ভোক্তা ট্রাকসেল কার্যক্রম থেকে পরিমিত হারে আলু ক্রয় করতে পারবে।

এদিকে খোলা বাজার থেকে কম মূল্যে ও সরকারি নির্ধারিত দামে আলু ক্রয় করতে পারায় স্বস্তির কথা জানান ভোক্তারা।

কর্মসূচিতে আলু ক্রয় করা কয়েকজন ভোক্তা জানান, আলুর ক্রমাগত দাম বৃদ্ধির কারণে তারা বিপাকে পড়েছিল, এই উদ্যোগের মাধ্যমে এটি নিরসন হবে। বিশেষ করে দরিদ্র ও নিম্ন আয়ের মানুষরা এ থেকে অনেক বেশি উপকৃত হবে।

জেলা প্রশাসক মো: আবু জাফর রিপন জানান, গত কয়েকদিন ধরে আলুর বাজারে অস্থিরতা তৈরি হয়েছিল। যেটি নিরসনের জন্য মাঠে তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছিলো জেলা প্রশাসন । প্রশাসনের তৎপরতার কারণে আলুর দামের উর্ধ্বগতি রোধ হয়েছে। সরকার নির্ধারিত দামে সর্বক্ষেত্রে আলু বিক্রি নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত প্রশাসনের অভিযান- তৎপরতা চলবে। নতুন উদ্যোগ নেওয়া ট্রাকসেল কার্যক্রমের মাধ্যমে স্বস্তি আসবে ক্রেতাদের মাঝে, আর রোধ হবে অসাধু ব্যবসায়ীদের তৎপরতা। প্রথমে শহরে ও পর্যায়ক্রমে পুরো জেলায় চালু হবে এ ট্রাকসেল কর্মসূচি।

error: দুঃখিত!