২২শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
শুক্রবার | বিকাল ৪:১৫
মুন্সিগঞ্জে হাতুড়ি পিটুনিতে ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১, বিশেষ প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া ‍উপজেলায় পূর্ব বিরোধের জেরে হাতুড়ি পিটুনিতে ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু হয়েছে। পরিবারের দাবি, হোসেন্দী ইউনিয়নে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় সাজিদুল ইসলাম মিম (২২)। সে উপজেলার হোসেন্দী এলাকার ইসমানিরচর গ্রামের আব্দুস সাত্তার মিয়ার ছেলে ও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সম্পাদক।

এ ঘটনায় গজারিয়া থানায় গত ১৭ সেপ্টেম্বর চুরি ও হুমকি প্রদানের অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করে নিহতের পিতা আব্দুস সাত্তার।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ১৫ সেপ্টেম্বর দুপুরে নিহত মিম নাজিরচর এলাকা থেকে বাসায় ফেরার পথে ইসমানিরচর এলাকার মৃত আ. বাছেদ মোল্লার ছেলে, হোসেন্দী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সংগ্রাম মোল্লা (২৪), মৃত আবুল হোসেন মুফতির ছেলে মো. আতাউর (২৭), আহম্মদ আলীর ছেলে সম্রাট (২২), আহম্মদ ফরাজীর ছেলে তুষার (২০), মৃত আঃ হাকিমের ছেলে সাব্বির (২২), মৃত মহসিনের ছেলে নিজুম (২২), ইসমানিরচর এলাকার মৃত রাসেলের ছেলে অপু (২২), আঃ রহিমের ছেলে মো. আরজু (২০), আঃ লতিফের ছেলে শুভ (২০) সহ অজ্ঞাতনামা আরও ১০-১২ জন পূর্ব বিরোধের জের ধরে ইসমানির চর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন অ্যাডভান্স প্রি-ক্যাডেট স্কুলের সামনে নিয়ে লোহাড় হাতুড়ি ও অন্যান্য দেশীয় অস্ত্র দিয়ে পেটায়। পরে তাকে গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ মারা যায় সে।

গজারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রইছ উদ্দিন ‘আমার বিক্রমপুর’ কে জানান, গুরুতর আহত সাজিদুল ইসলাম মিম (২২) আজ সকালে মারা গেছেন। এ ঘটনায় পূর্বে একটি মামলা হয়েছিলো। সেটি হত্যা মামলায় রুপান্তর করা হবে। অভিযুক্ত কাউকে আটক করা যায়নি। তবে অভিযান অব্যাহত আছে।

error: দুঃখিত!