৩রা ডিসেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
রবিবার | রাত ৯:২২
মুন্সিগঞ্জে সামান্য বিষয় নিয়ে ধস্তাধস্তি করতে গিয়ে প্রাণ গেল তরুণের
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ১৬ অক্টোবর ২০২৩, নিজস্ব প্রতিবেদক (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই তরুণের মধ্যে ঝগড়া হয়। এ সময় একজনের আঘাতে ফাহিম হোসেন (১৮) নামের এক তরুণের মৃত্যু হয়। গতকাল রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার রশুনিয়া ইউনিয়নের গোয়াল বাড়ীর মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ফাহিম হোসেন উপজেলার রশুনিয়া ইউনিয়নের উত্তর তাজপুর গ্রামের প্রয়াত নুরু বেপারীর ছেলে। ঘটনার সাথে জড়িত অন্য তরুণের নাম গোপাল পাটিনি (১৯)। এ ঘটনায় গোপালকে আটক করেছে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানান, ফাহিম হোসেন ১০ টাকার নোট দিয়ে একটি খেলনা বানান। খেলনাটি গোপাল পাটিনি নামে ওই প্রতিবেশী তরুণ আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিতে চান। এ নিয়ে ফাহিমের সঙ্গে গোপাল পাটিনির কথা কাটাকাটি হয়। এর এক পর্যায়ে দুজন ঝগড়ায় জড়িয়ে পড়েন। তাদের দুজনের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়। সে সময় গোপাল পাটনি ফাহিমের ঘার ধরে মাটিতে ফেলে দেয়। এতে ফাহিম অজ্ঞান হয়ে পড়েন। স্থানীয়রা আহত ফাহিমকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

সিরাজদিখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মাকসুদা সুলতানা সোমবার সকালে বলেন, রাত সাড়ে দশটার দিকেরওই তরুণকে হাসপাতালে মৃত অবস্থায় আনা হয়। তার শরীরে দৃশ্যমান আঘাতের কোনো চিহ্ন ছিল না।

মুন্সিগঞ্জ সহকারি পুলিশ সুপার (সিরাজদিখান সার্কেল) মুস্তাফিজুর রহমান রিফাত বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই দুই তরুণ ঝগড়া করে। এতে ফাহিম মারা যায়। ফাহিমের ঘার এক দিকে বাকানো ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, ধস্তাধস্তির সময় ফাহিমের ঘার ভেঙে গেছে। এ ঘটনায় গোপাল পাটনিকে আটক করা হয়েছে। নিহতের মা বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

error: দুঃখিত!