২০শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
বৃহস্পতিবার | দুপুর ১২:৩৯
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মুন্সিগঞ্জে মন্দিরে হামলা চালিয়ে প্রতিমা ভাংচুর, আহত ২
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলায় একটি মন্দিরে হামলা চালিয়ে প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় আহত হয়েছে দুইজন।

শুক্রবার রাতে উপজেলার কেয়াইন পূর্ব কোর্টগাঁও গ্রামে কালী মন্দিরে প্রতিমা ভাংচুরের এ ঘটনা ঘটে বলে মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুখরঞ্জন মনি দাস জানান।

আহত অজয় দাস ও আকাশকে সিরাজদিখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

খবর শুনে শনিবার সিরাজদিখান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহম্মেদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানবীর মোহাম্মদ আজীম, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাবেক সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার দত্ত, রশুনিয়া হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি ডা. রনবীর ঘোষ ও পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক বলেন, গ্রামে বাৎসরিক কালীপূজার পরের দিন মহোৎসব এবং এর পরের দিন মৎস্যমুখী (মাছ খাওয়া) অনুষ্ঠান পালন করা হয়। শুক্রবার দুপুরে মৎস্যমুখী শেষে রাতে গান বাজনা চলছিল।

“রাত সাড়ে ১০ দিকে কালারায়ের চর গ্রামের আক্রাম সেখানে এসে মদ চায়। না পেয়ে ১০/১২ জন সহযোগী নিয়ে এসে হামলা করে প্রতিমা ভাংচুর করে।”

এ সময় তারা লাকড়ি দিয়ে অজয় ও আকাশকে পেটায়। পরে মন্দিরের লোকজন এসে আক্রাম শেখকে ধরলেও বাকিরা পালিয়ে যায় বলে জানান তিনি।

সুখরঞ্জন মনি দাস বলেন, “ঘটনার পর পুলিশকে খবর দেওয়া হলেও এর মধ্যে এলাকার ইকবাল হোসেন নামে এক ছেলে বিষয়টি মীমাংসা করে দেওয়ার কথা বলে আক্রামকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়।”

এ ব্যাপারে সিরাজদিখান থানার ওসি ইয়ারদৌস হাসান বলেন, “ঘটনা শুনে পুলিশ পাঠিয়েছি।

“এ ব্যাপারে লিখিত কোনো অভিযোগ এখনও আসেনি। অভিযোগ পেলে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

error: দুঃখিত!