২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
শুক্রবার | বিকাল ৫:১৩
মুন্সিগঞ্জে বসতবাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি, হাত-পা বেঁধে স্বর্ণ ও টাকা লুট
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ১৯ জানুয়ারি, ২০২৩, লৌহজং প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের লৌহজংয়ে বসতবাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এসময় সংঘবদ্ধ ডাকাতরা বাড়ির সিসিটিভি ক্যামেরা ভেঙে ৪০ ভরি স্বর্ণ ও ৪ লাখ টাকা লুট করে নিয়ে গেছে বলে ভুক্তভোগী পরিবার অভিযোগ করেছে।

গতকাল বুধবার দিনগত রাত সাড়ে ৩ টার দিকে উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের শিমুলিয়া গ্রামের আক্তার হোসেন খান লাবু ও বেলাল হোসেন বেপারীর বাসায় এই ডাকাতির ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী পরিবারের অভিযোগ, বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩ টার দিকে লাবু খানের বাসার জানালার গ্রিল কেটে বাসার ভিতর প্রবেশ করে ডাকাতরা। এরপর বাসায় থাকা সকলের হাত-পা, মুখ বেঁধে ৪০ ভরি স্বর্ণ ও নগদ টাকা লুট করে নিয়ে যায়।

একই সময় পাশের বাসার বেলাল হোসেন বেপারীর বাসায় থাকা সিসিটিভি ক্যামেরা ভেঙে দরজার তালা কেটে এক এক করে জানালার গ্রিল কেটে ঘরে প্রবেশ করে ডাকাতরা। এরপর ৬টি দরজার তালা ভেঙ্গে ঘরের বিভিন্ন জায়গা তছনছ করে।

আক্তার হোসেন খান লাবু অভিযোগ করে বলেন, রাত আনুমানিক সাড়ে তিনটার দিকে হঠাৎ আমার রুমের লাইট জ্বালিয়ে আমার ও আমার সহধর্মিণীর দিকে ৬ জন ডাকাত দেশীও ধারালো অস্ত্র নিয়ে ঘেরাও করে ফেলে। আর বলে আমরা ডাকাত কোন চিৎকার বা চালাকি চেষ্টা না করে চুপ করে বসতে। সাথে ঘরে কি কি টাকা- স্বর্ণ রয়েছে সেগুলো সন্ধান দিতে। এরপর আমার ঘরের সবার হাত পা মুখ বেঁধে ফেলে। এক এক করে আমার ঘরের আলমারি তছনছ করা শুরু করে। ঠিক আধাঘন্টার মধ্যে আমার ঘরে থাকা ৪০ ভরি স্বর্ণ ও নগদ চার লাখ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।

বেলাল হোসেন বেপারী অভিযোগ করে বলেন, আমি ব্যবসার কাজে দুবাই গিয়েছিলাম। গতকাল আসছি, তাই ঢাকাতেই ছিলাম। গ্রামে এখনও আসতে পারিনি। বাসায় আসলে বুঝতে পারবো কি কি নিয়ে গেছে। এখনও সঠিক বলতে পারছি না। তবে সিসিটিভি ক্যামেরাগুলো ভেঙে ফেলেছে। সে সাথে বাসার আলমারির সবকিছু তছনছ করে রেখে গিয়েছে।

লৌহজং থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর বলেন, খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। ঘটনা উদঘাটনে পুলিশ, সিআইডিসহ একাধিক সংস্থা কাজ করছে।

error: দুঃখিত!