২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
মঙ্গলবার | রাত ১১:০৪
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মুন্সিগঞ্জে ফিল্মি স্টাইলে অস্ত্র নিয়ে সন্ত্রাসীদের মহড়া
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, নিজস্ব প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জ সদরের মোল্লাকান্দিতে ইউনিয়নের দীর্ঘদিনের সংঘাত-সংঘর্ষ যেন থামছেই না। নিয়মিতই চলছে অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্রের মহড়া।

কয়েকদিন পরপরই এমন দৃশ্য দেখা গেলেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ হতে অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনা নেই বললেই চলে।

গেল এক যুগ ধরে আধিপত্য বিস্তার ও ক্ষমতা প্রদর্শণের দ্বন্দের জের ধরে মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের গ্রাম গুলোতে দুইটি মূল পক্ষের কর্মী-সমর্ধকদের মধ্যে অসংখ্যবার সংঘর্ষ হয়েছে।

মোল্লাকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিপন হোসেন পাটোয়ারী এবং সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মহসিনা হক কল্পনার সমর্থক দুই গ্রুপের লোকজনের দ্বন্দে গোটা ইউনিয়ন আতঙ্কের জনপদে পরিণত হয়েছে।

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের গ্রামে গ্রামে আগ্নেয়াস্ত্রের ঝনঝনানির দৃশ্য ছড়িয়ে পড়েছে। প্রকাশ্যে ব্যবহার করতে দেখা গেছে অত্যাধুনিক সব আগ্নেয়াস্ত্র।

তবে পুলিশের পক্ষ থেকে এসব অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধারে কোন তৎপরতা দেখা যায়নি।

গেল শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) ভোড়ের দিকে পূর্ব মাকহাটি গ্রামে দুই গ্রুপের লোকজন হামলা ও সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় ব্যাপক দেশী-বিদেশী আগ্নেয়াস্ত্রের ব্যবহার হয়।

জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম অ্যান্ড অবস্) আদিবুল ইসলাম বলেন, সংঘর্ষ চলাকালে আগ্নেয়াস্ত্রের ব্যবহারের ছবি আমরা পেয়েছি। এ ব্যাপারে পুলিশ তদন্ত চালাচ্ছে। যাচাই-বাছাই চলছে। পুলিশ পদক্ষেপ নিবে শিগগিরই।

মোল্লাকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রিপন হোসেন পাটোয়ারী বলেন, শুক্রবার ভোরে পূর্ব মাকহাটি গ্রামে সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার লাভলী আক্তার ও সদর উপজেলা যুবলীগের দপ্তর সম্পাদক খাইরুদ্দিন মোল্লার বাড়ি ভাঙচুর করে সাবেক চেয়ারম্যান মহসিনা হক কল্পনার লোকজন।

তার দাবি, জেলা বিএনপির সদস্য আতাউর রহমান মল্লিক, সদর উপজেলা যুবদলের সদস্য সচিব সাজ্জাদুর রহমান জনি মল্লিক ও ইউনিয়ন যুবদলের সহ সভাপতি মিল্টন মল্লিকের নেতৃত্বে গেলো শুক্রবার তার সমর্থকদের বাড়ি-ঘরে এই হামলা চালানো হয়েছিলো।

মোল্লাকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মহসিনা হক কল্পনা বলেন, আমি তো আর গ্রামে যাই না। রাজনীতি ছাইড়া দিয়া আইছি। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের পর থেকে কংশপুরা, রাজারচর ও মাকহাটি গ্রামে আমার সমর্থকরা বাড়িঘর ছাড়া রয়েছেন। ইউপি চেয়ারম্যান রিপন হোসেন পাটোয়ারীর লোকজন আমার সমর্থকদের বাড়িঘর ছাড়া করেছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অস্ত্রসহ ছবি ছড়িয়ে পড়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বর্তমান চেয়ারম্যানের সমর্থক উজির আলী ও আওলাদ মোল্লা ককটেল বানাতে অর্থ জোগান দিচ্ছে।

error: দুঃখিত!