২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
মঙ্গলবার | সন্ধ্যা ৭:৩৯
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মুন্সিগঞ্জে ধ র্ষ ণ মামলা দিয়ে প্রতিবেশীকে ফাঁসাতে গিয়ে নারী কারাগারে
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ২১ নভেম্বর ২০২৩, নিজস্ব প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জে ধর্ষণ মামলা দিয়ে প্রতিবেশীকে ফাঁসাতে গিয়ে ফেঁসেছেন এক নারী।

মিথ্যা মামলা করার অভিযোগে অভিযুক্ত নারী বিনা বেগম (৪১) মঙ্গলবার (২১ নভেম্বর) দুপুরের দিকে মুন্সীগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে আত্মসমর্পণ করলে আদালত তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নারী ও শিশু ট্রাইব্যুন্যালের বেঞ্চ সহকারি শহিদুল ইসলাম।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, মুন্সিগঞ্জের টংগিবাড়ী উপজেলার দক্ষিণ বেতকা গ্রামের ওই গৃহবধূর বাড়িতে প্রতিবেশী শহিদ বাগজা (৫৫), মনির ফকির (৩৫) তাকে ২০১৯ সালের ২৪ ডিসেম্বর পালাক্রমে ধর্ষণ করে বলে বিগত ৩১ ডিসেম্বর টংগিবাড়ী থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেন। পরে ওই মামলায় বাদী ও প্রতিবেশী আসামি শহিদ বাগজা ও মনির বাগজার ডিএনএ টেস্ট করলে ওই ডাক্তারি পরিক্ষায় ধর্ষণের বিষয়টি প্রমাণিত না হওয়ায় থানা হতে চুড়ান্ত রিপোর্ট দিলে অভিযুক্তদের আদালত হতে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

বাদীর এমন মিথ্যা মামলার প্রেক্ষিতে অভিযুক্ত প্রতিবেশী শহিদ বাগজা বাদী হয়ে মুন্সিগঞ্জ নারী ও শিশু ট্রাইব্যুন্যালে ওই গৃহবধূ, তার স্বামী ও দেবরের বিরুদ্ধে গত ২১ মে মামলা দায়ের করলে ওই মামলাটি টংগিবাড়ী থানাকে এফআইআর হিসাবে গ্রহণ করতে নির্দেশ দেয় আদালত।

মামলায় এর আগে এসহাক বাগজাকে গ্রেপ্তার করে পুুলিশ আদালতে প্রেরণ করলে আদালতের নির্দেশে এসহাক বাগজা কারাগারে রয়েছে। পরে অপর অভিযুক্ত নারী মঙ্গলবার আদালতে আত্মসমর্পণ করলে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

error: দুঃখিত!