২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
রবিবার | সকাল ৭:৩৬
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মুন্সিগঞ্জে জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, নিজস্ব প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

সমগ্র পৃথিবীর বুকে মাথা উচু করা যে বাংলাদেশেকে এদেশের মানুষ দেখতে চায়, সে দেশটি তোমাদের হাত ধরেই হবে। তোমাদের মাধ্যমে স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বাস্তবায়ন হবে। এজন্য সবার আগে তোমাদের মেধাবি হওয়ার পাশাপাশি ভালো মানুষ হতে হবে।

মুন্সিগঞ্জে গতকাল শুক্রবার শিখো-প্রথম আলো জিপিএ-৫ প্রাপ্ত কৃতী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন আগত অতিথিরা। শহরের শিল্পকলা একাডেমিতে এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ৪০৬ জন শিক্ষার্থী নিবন্ধন করে। এর মধ্যে ৩৫০ জন শিক্ষার্থী অনুষ্ঠানে অংশ নেয়।

সকাল ১০ নয়টায় মুন্সিগঞ্জ বন্ধুসভার জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। অনুষ্ঠানে অতিথিদের বক্তব্যের ফাঁকে ফাঁকে ছিল নৃত্য, কবিতা আবৃত্তি, গজল ও সংগীত পরিবেশনা। অনুষ্ঠানে অংশ নেয় প্রায় সাড়ে তিনশর বেশি কৃতী শিক্ষার্থী।

অনুষ্ঠানে মুন্সিগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) স্নেহাশীষ দাশ বলেন, তোমরা মেধাবী শিক্ষার্থী। দেশ গড়ার জন্য অবশ্যই মেধার দরকার আছে। মাথা উঁচু করা যে স্বপ্নের দেশ আমরা চাই, তার জন্য সবার আগে তোমাদের ভালো মানুষ হতে হবে। ভালো মানুষ যে কাজ বা পেশায় থাকুক না কেনো তার মধ্যে সব সময় দেশপ্রেম থাকে।তোমাদের মাদক ও কিশোর অপরাধ থেকে দূরে থাকতে হবে। অবশ্যই সততা ও সাহসের সঙ্গে দেশকে ভালোবেসে সামনের দিকে এগিয়ে যাবে। ভালো মানুষ হয়ে পরিবার, দেশ ও দেশের মানুষের জন্য কাজ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের মিথ্যা, মুখস্থ, মাদককে ‘না’ বলার শপথবাক্য পাঠ করান প্রথম আলো ট্রাস্টের সমন্বয়ক মাহবুবা সুলতানা। তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেন, মা,মাতৃভাষা ও মাতৃভূমিকে কখনো ভোলা যাবেনা। পৃথিবীর যে প্রান্তেই থাকোনা কেনো এই তিন মাকে সবসময় ভালোবেসে যেতে হবে। ভালো মানুষ হতে হবে।

দেশের ৬৪টি জেলায় ধারাবাহিকভাবে প্রথম আলোর আয়োজনে ও শিক্ষার ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ‘শিখো’র পৃষ্ঠপোষকতায় জিপিএ-৫ পাওয়া কৃতী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান হচ্ছে।

সকালে সূর্যের আলো ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে মাঠে হাজির হতে থাকে শিক্ষার্থীরা। সেখানে বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা, গল্প, হাসাহাসি আর সেলফি তোলায় মেতে ওঠে তারা। শুরু থেকে শিল্পকলা প্রাঙ্গণে সাতটি বুথ থেকে শিক্ষার্থীদের ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট ও নাশতা তুলে দেন মুন্সিগঞ্জ বন্ধুসভার সদস্যরা।

লৌহজংয়ের কাজির পাগলা অভয় তালুকদার ইনস্টিটিউট থেকে এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়েছে হৃদিতা ইসলাম। গোয়ালিমান্দ্রা বাজার থেকে ৪০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে আরও ৪ কৃতী শিক্ষার্থী মো. শাকিল, রেশমি ইসলাম, মিথিলা মণ্ডল ও আরশি আলমের সঙ্গে উৎসবে এসেছে সে।

হৃদিতা বলেন, ‘আমি এখন লৌহজং সরকারি কলেজে ভর্তি হয়েছি। অন্য বন্ধুরা ভর্তি হয়েছে জেলার বিভিন্ন কলেজে। অনেক দিন হলো কারও সঙ্গে দেখা হয়নি। উৎসবে এসে অনেক বন্ধুদের সঙ্গে দেখা হলো। সেলফি তুলছি, মজা করছি।’

বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা, গল্প, হাসাহাসি আর সেলফি তোলায় মেতে ওঠে থাকে শিক্ষার্থীরা। ছবি: আমার বিক্রমপুর।

সিরাজদিখান উপজেলার ইছাপুরা এলাকা থেকে এসেছে রিয়ানা আক্তার। রিয়ানা বলেন, ‘এর আগে কত মানুষকে সংবর্ধনা দিতে দেখেছি। কত মানুষের জন্য হাতে তালি দিয়েছি। তখন থেকে এমন সংবর্ধনা পাওয়ার লোভ জাগত। এ বছর এসএসসিতে জিপিএ-৫ পাওয়ায় প্রথম আলো থেকে সংবর্ধনা পাচ্ছি। সত্যি অসাধারণ এক অনুভূতি।’

শহর থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে টংগিবাড়ী উপজেলার কুর্মিরা গ্রাম থেকে সকালে উৎসবে এসেছে এরাবিয়ান ব্যাপারী, নাহিদ হাসান, নাফিয়ান। তারা আড়িয়ল স্বর্ণময়ী উচ্চবিদ্যালয় থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে। এরাবিয়ান বলেন, ‘এমন উৎসবে আগে কখনো আসিনি। জীবনে প্রথম এ ধরনের বড় অনুষ্ঠানে এলাম। এখানে উপস্থিত হতে পেরে নিজেকে গর্বিত মনে হচ্ছে। মনে হচ্ছে, জীবনের প্রথম সফলতার শুরুটা এখান থেকে।’

দিনব্যাপী সংবর্ধনায় শিক্ষার্থীদের জন্য ছিলো ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট, প্রথম আলো ই-পেপার (১ মাস) ও চরকির (১৫ দিন) ফ্রি সাবস্ক্রিপশন, শিখোর সৌজন্যে বিনা মূল্যে কোর্স, ফ্রেশ ব্র্যান্ডের স্ন্যাকস বক্স।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন, প্রথম আলো বন্ধুসভার সদস্য মাশফিক সিহাব। স্বাগত বক্তব্য দেন প্রথম আলোর মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি ফয়সাল হোসেন।

শিক্ষার্থীদের দিকনির্দেশনা দিতে অনুষ্ঠানস্থলে উপস্থিত হন, মুন্সিগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) স্নেহাশীষ দাশ, বীর মুক্তিযোদ্ধা মতিউল ইসলাম হিরু, মুন্সিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি শহিদ-ই- হাসান তুহিন, জেলা সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি সুজন হায়দার জনি, প্রথম আলো ট্রাস্টের সমন্বয়ক মাহবুবা সুলতানা, সরকারি হরগঙ্গা কলেজের ইংরেজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মুন্সি সিরাজুল হক, ক্রীড়াবিদ আয়নাল হক স্বপন, সংগীতশিল্পী শিশির রহমান প্রমুখ।

error: দুঃখিত!