১৮ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
বৃহস্পতিবার | সকাল ১১:০৬
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মুন্সিগঞ্জে চাঁদা চেয়ে চোখ মুখ বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগে পুলিশের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১, বিশেষ প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের লৌহজং থানার সাব ইন্সপেক্টর আবু তাহের মিয়ার বিরুদ্ধে চাঁদা চেয়ে যুবককে চোখ মুখ বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগে মুন্সিগঞ্জ আদালতে মামলা হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) রিপন শেখ বাদী হয়ে মুন্সিগঞ্জ আদালতে মামলা করলে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালত-৬ এর বিচারক আব্দুল্লাহ আল ইউসুফ মামলাটি আমলে গ্রহণ করে এফআইআর হিসেবে গন্য করার জন্য লৌহজং থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বরাবর প্রেরণ করেন।

মামলার বাদী রিপন শেখ লৌহজং উপজেলার কুমারভোগ পুর্নবাসন কেন্দ্র এলাকার মৃত সাহেদ শেখ এর ছেলে।

বাদী রিপন শেখ আদালতে দায়েরকৃত এজাহারে বলেন, তার স্ত্রী রুবি আক্তারের সাথে বনিবনা না হওয়ায় রুবি আক্তারের ভাই ও বোন মিলে গত ৪ সেপ্টেম্বর সকালের দিকে রিপন শেখের বাড়িতে এসে তাকে মারপিট করে। পরে একই তারিখে অভিযুক্ত এসআই আবু তাহের মিয়া সাদা পোশাকে রিপনের বাড়ি থেকে জোর করে তাকে ধরে থানায় নিয়ে আসে। পরে চোখমুখ বেধে তাকে মারধর করে ৫ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে। রিপন চাঁদা দিতে অস্বিকার করলে এস আই আবু তাহের শেখ তাকে মারধর করে থানা থেকে বের করে দেন।

পরে সে চিকিৎসা ‌ নিয়ে মঙ্গলবার মুন্সিগঞ্জ আদালতে এসে লৌহজং থানায় কর্মরত এসআই আবু তাহের ও রিপনের স্ত্রীসহ ৫জনকে আসামী করে মামলা করেন।

মামলার বাদী রিপন শেখের আইনজীবী এডভোকেট রোজিনা ইয়াসমিন বলেন, রিপন শেখের অভিযোগের প্রেক্ষিতে আদালতে মামলা দায়ের করলে আদালত মামলাটি এফ আই আর হিসেবে গন্য করার জন্য লৌহজং থানার ওসিকে নির্দেশ দেন।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত এএসআই আবু তাহেরের মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে আপনার সাথে একটু পরে কথা বলছি বলে মোবাইল সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।

error: দুঃখিত!