২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
মঙ্গলবার | রাত ৩:২২
মুন্সিগঞ্জে গভীর রাতে প্রবাসীর ঘড়ে আগুন, ২০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ৫ জানুয়ারি, ২০২১, শিহাব আহমেদ (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের টংগিবাড়ীতে অগ্নিকান্ডে সর্বস্ব হারিয়ে একটি পরিবার একেবারে নিংস্ব হয়ে গেছে। উপজেলার চাঠাতি পাড়া গ্রামের সৌদি প্রবাসী নাসির বেপারীর ঘরে আজ মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারী) ভোর রাত ৩ টার দিকে ঘরের পাশে স্থাপিত বিদুৎতিক ট্রান্সমিটার হতে আগুনের সুত্রপাত হয়।

পরে তা দ্রুত ছড়িয়ে পরে ঘরের মধ্য থাকা গ্যাস সিলেন্ডার অগ্নিকাণ্ডের কারনে বিস্ফোরিত হয়ে আগুন ভয়াবহ আকার ধারন করে। নিমিষে ওই প্রবাসীর দুটি বসতঘর, রান্নাঘর, আলু রাখার গুদাম ঘর এমনকি বাথরুমে আগুন ছড়িয়ে পরে।

এ সময় সৌদি প্রবাসী নাসিরের দুটি ঘরের মধ্যে শুয়ে থাকা তার স্ত্রী, ২ মেয়ে এক ছেলে এবং তার বোন ও বোন জামাই ঘুমাচ্ছিলো। কোন রকমে তারা ঘর হতে বেরুতে পারলেও ঘরের মধ্যে থাকা আসবাব পত্র, টিভি, ফ্রিজ, ল্যাপটপ, মোবাইল, স্বর্নালংঙ্কার এবং লক্ষাধিক টাকা পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে প্রায় ২০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে বলে ভূক্তভোগী পরিবারের দাবী।

গ্রামবাসী অগ্নিকাণ্ডের পর হতেই আগুন নিয়ন্ত্রণে চেষ্টা করে তা নিয়ন্ত্রন করতে ব্যার্থ হয়। পরে মুন্সিগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ভোড় সাড়ে ৫টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনলেও ওই প্রবসীর সর্বস্ব পুরে ছাই হয়ে যায়।

এ ব্যাপারে ওই প্রবাসীর চাচাতে ভাই সেলিম বেপারী বলেন, আমার ভাইয়ের ঘরের পাশেই পল্লী বিদুৎতের ট্রান্সমিটার বসেছে। ওই ট্রান্সমিটার হতে গতকাল সকাল হতে ফায়ারিং হচ্ছিলো। বিষয়টি আমরা টংগিবাড়ি পল্লী বিদুৎ অফিসকে মুঠোফোনে অবহিত করছি। পল্লী বিদুৎ অফিস দুজন লোক পাঠালেও তারা কোন ব্যবস্থা না নিয়ে আজ ঠিক করে দিয়ে যাবে বলেছে। কিন্তু রাতেই ওই ট্রান্সমিটার হতে আগুন লেগে আমার ভাইয়ের সর্বস্ব পুড়ে ছাই হয়ে গেলো।

তবে পল্লী বিদুৎতের ভিলেজ ইলেকট্রনিকশিয়ান মো. আবু হোসেন জানান, আমাদের ওই প্রবাসীর স্ত্রী ফোন দেওয়াতে ওই বাড়িতে গিয়েছিলাম। বাড়ির লাইনের কাটাউটে একটু সমস্যা হয়েছিলো তা ঠিক করে দিয়ে আসছি।

error: দুঃখিত!