২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
রবিবার | রাত ১১:৫৭
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মুন্সিগঞ্জে ক্রিকেট খেলা নিয়ে দ্বন্দে কু.পিয়ে হ.ত্যা
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ৩ জুন ২০২৪, নিজস্ব প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানে ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে দ্বন্দের জেরে প্রতিপক্ষের চাপাতির কোপে মো. হাশেম (৩৫) নামের এক যুবকের প্রাণ গেছে।

আজ সোমবার বিকাল ৪ টার দিকে উপজেলার লতব্দী ইউনিয়নের রামকৃষ্ণদী বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত হাশেম বাসাইল ইউনিয়নের উত্তর পাথরঘাটা গ্রামের সুলতান মিয়ার পুত্র ও বাসাইল ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম যুবরাজের ব্যক্তিগত গাড়ি চালক।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, লতব্দী ইউনিয়নের রামকৃষ্ণদী গ্রামের মনু বেপারীর ছেলে জাবেদ ওমরের সাথে একই গ্রামের আব্দুর রহমানের পুত্র ও বাসাইল ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম যুবরাজের জামাতা মো. জহিরুলের দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বিরোধ চলছিলো। গেল ৩১ মে রামকৃষ্ণদী বাজার মাঠে ক্রিকেট খেলা নিয়ে ওই দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সোমবার সকাল ১০ টায় স্থানীয়রা দুপক্ষের মধ্যে বিচার সালিশ করে বিষয়টি মিমাংসা করে দেন। কিন্তু বিকাল ৪ টার দিকে জাবেদ ওমরের লোকজন জহিুরুলের লোকজনের ওপর হামলা করেন। এ সময় জহিরুল সমর্থক মো. হাশেমকে চাপাতি দিয়ে কোপালে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি।

বাসাইল ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম যুবরাজ বলেন, শুধু ক্রিকেট খেলা নিয়ে নয়, জাবেদ ওমর গেল ২৯ শে মে তৃতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করে পরাজিত হয়। আমার মেয়ে জামাই জহিরুল তাকে সমর্থন না করায় আমার লোকজনের উপর পরিকল্পিতভাবে হামলা করে একজনকে হত্যা করেছে।

সিরাজদিখান থানার ওসি (তদন্ত) মোক্তার হোসেন জানান, ক্রিকেট খেলা নিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় এ ঘটনা ঘটেছে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। মামলা প্রক্রিয়াধীন।

error: দুঃখিত!