২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
মঙ্গলবার | সকাল ৬:৪৮
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মুন্সিগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে নারীদের মারধরের অভিযোগ
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ২৩ অক্টোবর, ২০২২, নিজস্ব প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জ সদরের রামপাল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বাচ্চু শেখের বিরুদ্ধে জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে চার নারীসহ ৫জনকে পেটানোর অভিযোগ আনা হয়েছে মুন্সিগঞ্জ সদর থানায়।

মুন্সিগঞ্জ সদর থানার ওসি মো. তারিকুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মারধরের শিকার ওই চার নারীসহ ৫জন গতকাল মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। তারা হলেন, রামপালের পানহাটা এলাকার মৃত নাসিরুদ্দিন বেপারীর স্ত্রী হোসনে আরা (৫০), আব্দুল বারেক ঢালীর স্ত্রী রাশেদা বেগম (৬০), সলিম ঢালীর ছেলে বারেক ঢালী (৭০), লতিফ সরকারের স্ত্রী মাকসুদা (৫৫) ও মজিবর দেওয়ানের স্ত্রী নাসিমা (৫০)।

মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. শৈবাল বসাক জানান, তাদের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় মারধরের চিহ্ন রয়েছে। তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গতকাল শনিবার বিকেল ৪টা’র দিকে রামপালের পানহাটা গ্রামের আফাজউদ্দিন বেপারীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

পরে মারধরের শিকার রাশেদা বেগম রাত সাড়ে আটটার দিকে মুন্সিগঞ্জ সদর থানায় ইউপি চেয়ারম্যান বাচ্চু শেখকে প্রধান অভিযুক্ত করে প্রায় ২০ জনের নামে অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগের বরাতে মারধরের শিকার রাশেদা বেগম জানান, আমার মৃত ভাইয়ের স্ত্রী ২নং বিবাদী রিনা বেগমের সাথে আমাদের জায়গা সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। পরে রিনা বেগম ও ১নং বিবাদী বাচ্চু শেখ মিলে আমাদের পিতার ওয়ারিশকৃত সম্পত্তির কোনো ওয়ারিশদের না দিয়ে একাই ভোগ দখল করার পায়তারা করে আসছে । শনিবার বিকেলের দিকে আমাদের বাড়িতে এসে ১নং ও ২নং বিবাদী সহ ১০-১২ জন অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা মিলে আমাদেরকে মারধর করে।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে রামপাল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বাচ্চু শেখ অভিযোগ অস্বীকার করেন।

তিনি বলেন, ঐ ঐলাকায় আমার কোন ঘড়বাড়ি নেই। আমি সেখানে যাইনি। এ ধরনের অভিযোগ মিথ্যা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিষয়টি তদন্ত করে দেখবে।

মুন্সিগঞ্জ সদর থানার ওসি মো. তারিকুজ্জামান বলেন, থানায় অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

error: দুঃখিত!