৩০শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
মঙ্গলবার | বিকাল ৩:৫৪
মুন্সিগঞ্জে অবৈধ এসিডে তৈরী হচ্ছে ব্যাটারির পানি
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১, শ্রীনগর প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার সদর ইউনিয়নের দেউলভোগ গোন্ডেন সিটির রিক অফিসের বিপরীত পাশে অবৈধ এসিডে তৈরী করা হচ্ছে ব্যাটারির পানি।

গ্রেড টোটাল প্লাস, গ্রেড ভলভো, গ্রেড টাইগার হাই পাওয়ারসহ বিভিন্ন ব্র্যান্ডের মোড়ক ব্যবহার করে ব্যাটারির এসব পানি বাজারজাত করা হচ্ছে। এখানে একটি টিনের ঘর ভাড়া নিয়ে ব্যাটারির এসব ভেজাল পানি তৈরী করার অভিযোগ উঠে আবুল কাশেমের বিরুদ্ধে।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, ওই এলাকার নিতাই মন্ডলের ছেলে সঞ্জয়ের কাছ থেকে জায়গাটি ভাড়া নিয়ে আবুল কাশেম নামে এক ব্যক্তি সালফিউরিক নামক এসিড দিয়ে বিভিন্ন নামিদামি ব্র্যান্ডের ব্যাটারির নকল পানি তৈরী করছেন।

দেখা গেছে, ৫ লিটারের প্লাষ্টিকের গ্যালোনে এসব এসিডযুক্ত পানি ভরে মোড়ক লাগানো হচ্ছে।

এ সময় নিরঞ্জন নামে এক শ্রমিক বলেন, তিনি এখানে মাসিক বেতনে কাজ করছেন। ওই শ্রমিক বলেন, আপনাদের কোন কিছু জানার প্রয়োজন হলে আমার মালিকের সাথে কথা বলেন।

আবুল কাশেমের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তার কারখানার ছাড়াপত্র আছে। যদিও তিনি তা দেখাতে পারেননি। কারখানায় এসিড সংরক্ষণ ও বহনের কোন লাইসেন্স আছে কিনা? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আপনারা কাগজ দেখবেন কেন? সেটা পুলিশ দেখবে।

একটি সূত্র জানায়, আবুল কাশেম এখানে বিভিন্ন নামিদামি ব্র্যান্ডের নামের আগে ছোট আকারে গ্রেড নাম সংযুক্ত করে স্টিকার মোড়ক ব্যবহার করে ব্যাটারির নকল পানি তৈরী করে আসছে। এছাড়াও ছাড়পত্রবিহীন কারখানায় অবৈধ পন্থায় এসিড আনা হচ্ছে। এসব ব্যাটারির নকল ও মানহীন পানি কিনে ক্রেতারা প্রতারিত হচ্ছেন।

শ্রীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) প্রণব কুমার ঘোষ জানান, খোঁজ খবর নিয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

error: দুঃখিত!