১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
শনিবার | দুপুর ১২:৪৭
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মুন্সিগঞ্জের যুবলীগ নেতা পরকীয়ার টানে নবাবগঞ্জে গিয়ে আটক
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ২৫ আগস্ট, ২০২০, শ্রীনগর প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার বীরতারা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি প্রদীপ মন্ডল (৪৮) পরকীয়ার টানে ঢাকা জেলার নবাবগঞ্জ এলাকায় গিয়ে আটক হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

গত ২৩ আগস্ট রোববার রাতে এক গৃহবধূর সাথে দেখা করতে গেলে এলাকাবাসী প্রদীপকে আটক করে উত্তম মাধ্যম দেয়। পরে নবাবগঞ্জের আগলা পুলিশ ফাড়িতে তাকে সোর্পদ করে স্থানীয়রা।

বীরতারা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ইউপি সদস্য প্রদীপ মন্ডল সাতগাঁও গ্রামের মৃত রাম লাল মন্ডলের ছেলে। সে ৩ সন্তানের জনক।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, একই ইউনিয়নের বাসিন্দা প্রবাসী তপনের স্ত্রী’র সাথে যুবলীগ সভাপতি প্রদীপ মন্ডল পরকিয়া সম্পর্ক গড়ে তুলে। ঢাকা জেলার নবাবগঞ্জে গৃহবধূ তার বাবার বাড়িতে বেড়াতে গেলে সেখানে প্রদীপ দেখা করতে যায়। রাতের আঁধারে গৃহবধূর কাছে অপরিচিত এক ব্যক্তির আসা যাওয়ার ঘটনায় এলাবাসীর সন্দেহ হলে স্থানীয়রা প্রদীপকে আটক করে উত্তম মাধ্যম দেয়।

এলাকাবাসী আরো জানায়, এর আগেও সাতগাঁও গ্রামের ঋষি পাড়ায় প্রবাসী তপনের বাড়িতে ওই গৃহবধূর সাথে অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকার অভিযোগে প্রদীপকে আটক করা হয়েছিল। বিষয়টি এলাকার সবারই জানা।

অপর একটি সূত্র জানায়, খবর পেয়ে বীরতারা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. সাব্বির শেখ নবাবগঞ্জের ওই পুলিশ ফাড়িতে গিয়ে প্রদীপকে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদানের ব্যবস্থা করে দেন। প্রদীপ এখন নবাবগঞ্জ উপজেলার আগলা এলাকার গালিমপুরের একটি ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন আছেন।

প্রদীপের স্ত্রী নিপা মন্ডলের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তাকে আটক করা হয়েছে এমন খবর পেয়েছি। তবে এর কারণ এখনও জানতে পারিনি।

বীরতারা ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি ও সাবেক ইউপি সদস্য প্রদীপ মন্ডলের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার মুঠো ফোনটি বন্ধ পাওয়া গেছে।

এ ব্যাপারে বীরতারা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. সাব্বির শেখের কাছে জানতে চাইলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।

error: দুঃখিত!