২৫শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
মঙ্গলবার | রাত ৯:১৫
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মুন্সিগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতি আরও অবনতির দিকে
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ২৯ জুলাই, ২০২০, বিশেষ প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জে পদ্মানদীর ভাগ্যকূল পয়েন্টে পানি ৭ দশমিক শূন্য ৫ মিটার উচ্চতায় প্রবাহিত হচ্ছে, যা বিপৎসীমার ৭৫ সেন্টিমিটার উপরে। একদিনের ব্যবধানে এক সেন্টিমিটার কমলেও নতুন করে প্লাবিত হয়েছে ১১টি গ্রাম। এতে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি অব্যাহত রয়েছে। বুধবার (২৯ জুলাই) জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের সহকারী প্রকৌশলী মো. রাকিবুল হাসান জানান, উজান থেকে নেমে আসা স্রোতে এ এলাকায় আগামী কয়েকদিন বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত থাকতে পারে। ঈদের আগে পদ্মার পানি কমার সম্ভবনা নেই।

সরকারি হিসাবে, এ পর্যন্ত মুন্সিগঞ্জ সদর, টংগিবাড়ী, শ্রীনগর ও লৌহজং উপজেলার ২৯টি ইউনিয়নের ১৮৯টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

এর মধ্যে লৌহজং উপজেলার ৪৯টি গ্রাম, শ্রীনগর উপজেলার ৬৮টি গ্রাম, টংগিবাড়ী উপজেলার ৪২টি গ্রাম, সদর উপজেলার ২৪টি গ্রাম ও গজারিয়া উপজেলার ৬টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে জেলার প্রায় ৪০ হাজারের বেশি পরিবার। তাদের জন্য ৬০টি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে।

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মো. আব্দুল কুদ্দুস বুলবুল জানান, জেলায় ২৪৭ মেট্রিকটন চাল, জিআর ক্যাশ ৩ লাখ টাকা, শিশু খাদ্য ২ লাখ টাকা, গো খাদ্য ৫ লাখ টাকা এবং ৪ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে।

error: দুঃখিত!