২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
মঙ্গলবার | সকাল ৬:৪৫
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মিরকাদিমের মেয়র সালামের বিরুদ্ধে মামলা করলেন মারধরের শিকার সেই নাগরিক
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ২ আগস্ট ২০২৩, নিজস্ব প্রতিবেদক (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জ সদরের মিরকাদিম পৌরসভার মেয়র আব্দুস সালামের বিরুদ্ধে স্থানীয় এক নাগরিককে মারধরের ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে।

মামলার এজাহার ও বাদী সূত্রে জানা যায়, মারধরের শিকার মাহবুবুর রহমান কাজলের ভাই মো. তাইফুর রহমান শান্ত (৪০) গতকাল জেলা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ১ নম্বর আমলি আদালতে মামলাটি দায়ের করেন।

এতে অভিযোগ করা হয়, বীর মুক্তিযোদ্ধা খলিলুর রহমানের ফ্রান্স প্রবাসী ছেলে সরকারি হরগঙ্গা কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান কাজল এলাকায় উন্নয়নমূলক কাজ করেন। ঘটনার দিন (গত ২৩ জুলাই) তার বাড়ির সামনে রাস্তার ওপর নিজ উদ্যোগে ডাস্টবিন নির্মাণের সময় মেয়র আব্দুস সালাম বাধা দেন। এছাড়াও বিভিন্ন সময় কাজল পৌরসভার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ফেসবুকে লেখালেখি করতেন। এ নিয়ে মেয়র সালাম কাজলের উপর ব্যক্তিগতভাবে ক্ষুব্ধ ছিলেন। সেদিন এক পর্যায়ে সালাম কাজলকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল ও মারধর করেন এবং মেয়রের সঙ্গে থাকা লোকজন তার থেকে টাকা-পয়সা ও ঘড়ি ছিনিয়ে নেন। এসময় ভুক্তভোগী কাজল ফেসবুক লাইভে থাকায় মারধরসহ ঘটনার উল্লেখযোগ্য অংশ ছড়িয়ে পরে। যা নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা হয়।

তাইফুর রহমান শান্ত বলেন, ‘ঘটনার দিনই আমরা সদর থানায় অভিযোগ দিয়েছিলাম। পুলিশ আমাদের মামলা নেই-নিচ্ছি বলে ঘুরাচ্ছিল। অগত্যা আমরা আদালতে মামলা করি। এখন আদালত অভিযোগ আমলে নিয়ে জেলা ডিবি পুলিশকে তদন্তের আদেশ দিয়েছেন।’

তিনি আরও অভিযোগ করেন, ‘ঘটনার পর আমরা প্রতিবাদ জানিয়ে এলাকায় মানববন্ধন করেছি। তারপর মেয়র আবার মিথ্যা অভিযোগ করে আমাদের বিরুদ্ধে পাল্টা মামলা করেছে।’

এ বিষয়ে মিরকাদিম পৌরসভার মেয়র আব্দুস সালাম সাংবাদিকদের বলেন, ‘তারা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করেছে। ঘটনার দিন আমাকে নানা বাজে কথা বলে তারা উত্তেজিত করে। আমি তখন তাকে গালাগাল করেছিলাম। আমি অসুস্থ মানুষ, তাকে মারধর করার প্রশ্নই ওঠে না।’

error: দুঃখিত!