১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
মঙ্গলবার | ভোর ৫:১৪
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
মডেল পটাতে ব্যর্থ রোনালদো!
খবরটি শেয়ার করুন:

প্রেমিকার তালিকাটা বেশ লম্বা। সেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে তাকে নিয়ে নারী বিষয়ক আলোচনা শুরু। এই দীর্ঘ সময়ে কোন মেয়ের কাছে উপেক্ষিত হয়েছেন কিনা তা জানা যায়নি। বরং ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর সঙ্গে সময় কাটানোর জন্য মুখিয়ে থাকেন হাজারও তরুণী। কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদের এ পর্তুগিজ উইঙ্গারই এবার এক অস্ট্রেলীয় তরুণীর কাছে বোল্ডআউট হলেন। অ্যালিনে লিমা নামে এক মডেলের কাছে উপেক্ষিত হলেন থরেল এই সুপার স্টার। হাজারবার পটানোর চেষ্টা করেও তাকে বাগে নিতে পারেননি রোনালদো। রবং ঘটনাটাই ফাঁস করে দিয়েছেন তিনি। দীর্ঘদিনের প্রমিকা ইরিনা শায়েকের সঙ্গে এ বছরের শুরুতে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায় রোনালদোর। রোনালদো এ ব্যাপারে এখনও মুখ খোলেননি। তবে অনেকেই বলছেন, রোনালদোর মায়ের সঙ্গে ইরিনার বনিবনা না হওয়ায় এ ছাড়াছাড়ি হয়। তবে রাশিয়ার মডেল ইরিনা এজন্য রোনালদোকে দোষ দিয়েছেন। তার সঙ্গে সম্পর্ক চলাকালেই রোনালদো নাকি অন্য মেয়েদের সঙ্গে খুদেবার্তা চালাচালি করতেন। এছাড়া ফোনে কথা বলা তো আছেই। তবে যে কারণেই ছাড়াছাড়ি হোক, রোনালদো এখন চার্জের খোঁজে। সেখানেই যাচ্ছেন সেখানেই চার্জ খুঁজছেন। এবার প্রাক-মওসুম সফরে রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়া সফর করেন। আর সেখানেই এক অস্ট্রেলীয় সুন্দরী মডেল তার দৃষ্টিতে পড়েন। কিন্তু ছেলেবন্ধু রাগ করবে বলে মডেল মেয়েটি রোনালদোকে সময় দিতে চাননি। অনলাইনে তাদের খুদেবার্তা আদান-প্রদানে তেমনটাই উঠে এসেছে। একপর্যায়ে রোনালদো লিমাকে খুদেবার্তায় লেখেন, ‘তোমার জিম করা অবস্থায় তোলা একটি ছবি আমাকে পাঠাবে?’ জবাবে লিমা বলেন, ‘না, আমার প্রেমিক বিষয়টা জানতে পারলে মোটেও খুশি হবে না।’ রোনালদো তাকে আশ্বাস দিয়ে বলেন, ‘ভয়ের কিছু নেই, বেবি। বিষয়টি কেউ জানতে পারবে না।’ লিমা বলেন, ‘না, সেটা ঠিক হবে না।’ রোনালদো নাছোড়বান্দার মতো বলেন, ‘বললাম তো, আমি কাউকে ওই ছবি দেখাবো না। একটা ছবি পাঠাও।’ লিমা এবার রোনালদোর প্রস্তাবি রাজি হওয়ার জন্য কঠিন এক শর্ত জুড়ে দেন। এতে মনে হয় প্রেমিককে খুব ভালবাসেন লিমা। বলেন, ‘ঠিক আছে। তবে একটা কথা, ছবি পাঠালে তুমি কি আমার প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করবে?’ লিমার এমন প্রস্তাবে অনেকটা মনক্ষুণ্ন হন রোনালদো। এমন প্রস্তবে তিনি বলেন, ‘আমি কোন পুরুষের সঙ্গে দেখা করতে পছন্দ করি না। তোমার সঙ্গে দেখা করতে চাই। পারলে সঙ্গে তোমার অন্য কোন বান্ধবীকে আনতে পারো, তবে পুরুষ মানুষ নয়।’ লিমা এবার রোনালদোকে একেবারে বোল্ডআউট করে দেন। বলেন, ‘দুঃখিত, এ প্রস্তাব মেনে নেয়া আমার পক্ষে সম্ভব নয়।’ সুন্দরী মডেলকে বাগে নেয়ার জন্য এবার অন্য টোপ দেন রোনালদো। বলেন, ‘তোমার মোবাইল নাম্বারটা দাও। ম্যাচ দেখার জন্য তোমাকে আমি স্পেশাল টিকিট পাঠাবো।’ এমন প্রস্তাবেও রাজি হননি লিমা। রোনালদোকে তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দেন, ‘দুঃখিত, এ প্রস্তাবও আমি মানতে পারছি না।’

error: দুঃখিত!