২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
শনিবার | সকাল ৬:৫৩
বীর মুক্তিযোদ্ধা আনিছুল ইসলাম তালুকদারের কবিতা ‘শেখ রাসেল স্বরণে’
খবরটি শেয়ার করুন:

  শেখ রাসেল স্বরণে

  • বীর মুক্তিযোদ্ধা আনিছুল ইসলাম তালুকদার

বনানীর কবরস্থানে রাসেল ঘুমায় পাশে ওর মা,
কি লিখিব এই শিশুর কথা প্রাণ যে মানেনা?
শিশুপুত্র শেখ রাসেল বঙ্গবন্ধুর নয়নের মনি,
কারিয়া নিল ওর নিষ্পাপ প্রাণ নরপশু পাষন্ড খুনি।
বয়সটা হয়নি করিতে রাজনীতি
বাই সাইকেল ছিল ওর খেলার সাথী,
তবে কেন এলো ওর নাম গণহত্যার তালিকায়?
ও যে অবুজ শিশু বুঝিতো না সাংসারিক অনেক কিছু
আশ্রয় ছিল মায়ের আচল তলে, বাবার স্নেহ মমতায়
সেনা, পুলিশ, কোট কাচারী, প্রয়োজন হয়নি ওর বাড়ি গাড়ি,
করতো না কোন রাজনীতি ছিল না কোন মতবাদ।
তবে কেন নরপশু খুন করিল এই অবুজ শিশু?
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের সন্তান বলেই কি ওর অপরাধ।
না ফুটিতে কুসুম কলি কুসুম মাটিতে লুটায়
আর যে পাবোনা দেখা ওকে এই মাটির ধরায়।
ঢাকা ইউনিভারসিটি ল্যাবরেটরি স্কুলে তখন চতুর্থ শ্রেনীতে পড়ে।
দশ বছরের অবুজ শিশু খেলা করিতো বাইসাইকেলে চড়ে।
১৫ ই আগস্ট কাল রাতে ৩২ নম্বরে যখন গোলাগুলি চলে ,
গুলি খেয়ে সহোদরের লাশ মেঝেতে পড়ে ঢলে
কাতর কন্ঠে প্রশ্ন করে ওরা আমাকে মারবে নাতো?
ঘাতকের দল চালায় গুলি রাসেল সহ লাশ জড়ো হয় কত।
আমি হাসু আপার কাছে যাব এই ছিল ওর শেষ কথা,
মাত্র একটি বুলেটে স্তদ্ধ হল ওর সজন হারানো ব্যাথা
পরম করুনাময় হে আল্লাহ্ রাব্বুল আলামিন
শেখ রাসেলের তরে বেহেশত নাজিল করিও হাসরের দিনে।
(হাসু আপা বর্তমানে স্বাধীন বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী)

error: দুঃখিত!