১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
মঙ্গলবার | রাত ১০:১৫
বাজেটে প্রবাসীদের জন্য রেমিটেন্সের ১০ শতাংশ ‘অভিবাসী উন্নয়ন বাজেট’ হিসেবে চায় ওকাপ
খবরটি শেয়ার করুন:
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on email

মুন্সিগঞ্জ, ২৯ মে, ২০২১, ডেস্ক রিপোর্ট (আমার বিক্রমপুর)

আসন্ন ২০২১-২০২২ অর্থবছরের বাজেটে প্রবাসীদের জন্য তাদের পাঠানো রেমিটেন্স থেকে শতকরা ১০ শতাংশ উন্নয়ন বাজেট হিসাবে বরাদ্দ চায় অভিবাসীদের অধিকার নিয়ে কাজ করা বেসরকারি সংগঠন অভিবাসী কর্মী উন্নয়ন প্রোগ্রাম-ওকাপ।

আজ ‍শনিবার (২৯ মে) গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তারা এ দাবি করে।

তারা বলছে, র্বতমান সরকারের গত ১০ বছরে সরকারিভাবে অভিবাসন করা মানুষরে সংখ্যা প্রায় ৬০ লক্ষ। একই সময়ে অভিবাসী কর্মীদের পাঠানো রেমিটেন্সের পরিমাণ ১,০৮১,৯৯২.৪৬ কোটি টাকা। করোনা আক্রান্ত র্অথবছরেও (২০১৯-২০) রেমিটেন্সের পরিমাণ ১৫৪, ৭৮৫ কোটি টাকা। যা করোনা র্পূবর্বতী র্অথবছরের তুলনায় ৯.৬ গুন বেশি।

তাদের দাবি, আসন্ন ২০২১-২২ জাতীয় বাজেটে অভিবাসী কর্মীদের উন্নয়ন, কল্যাণ ও সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য অভিবাসী কর্মীদের পাঠানো বার্ষিক রেমিটেন্সের উপর কমপক্ষে শতকরা ১০ শতাংশ উন্নয়ন বাজেট হিসাবে অভিবাসীদের উন্নয়ন, কল্যাণ ও সুরক্ষার জন্য বরাদ্দ দিতে হবে। এছাড়া সামাজিক ও  অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত বিদেশ ফেরত অভিবাসীকর্মী বিশেষ করে নারী অভিবাসী কর্মীদের জাতীয় ‘সামাজিক সুরক্ষা বেষ্টনিতে’ অর্ন্তভুক্ত করে মাসিক ভাতা প্রদানের জন্য প্রয়োজনীয় র্অথ বরাদ্দ নিশ্চিত করতে হবে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তারা আরও দাবি করেছে, অভিবাসী কর্মীদের সুরক্ষার জন্য ‘সোশাল বেনিফিট’ নিশ্চিত করতে ‘প্রফিডেন্ট ফান্ড’ চালু করতে হবে এবং এজন্য আসন্ন অর্থ বছরে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ নিশ্চিত করতে হবে।

অভিবাসী কর্মী উন্নয়ন প্রোগ্রাম-ওকাপ আরও বলেছে, অভিবাসী কর্মীদের পাঠানো রেমিটেন্সের উপর প্রদয়ে প্রণোদনা ২ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৫ শতাংশ করতে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ নিশ্চিত করতে হবে।

error: দুঃখিত!