৩০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
বৃহস্পতিবার | বিকাল ৪:৩০
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
পুলিশের ‘বিশেষ’ অভিযানে মোল্লাকান্দি থেকে আটক ১১
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ১২ এপ্রিল, ২০২২, সদর প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জ সদরের মোল্লাকান্দি ইউনিয়নে পুলিশের ‘বিশেষ’ অভিযানে ১১ জনকে আটক করা হয়েছে।

গতকাল সোমবার ভোর থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত ইউনিয়নটির বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালায় জেলা ও সদর থানা পুলিশ।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক এ তথ্য জানান।

গত শনিবার স্থানীয় বিবদমান দুইটি গ্রুপের মধ্যে সংর্ঘষের পর এ অভিযান পরিচালনা করা হয় বলে জানা যায়।

তবে পুলিশ বলছে, পূর্বে বিভিন্ন সময় বিশৃঙ্খলার ঘটনায় ফৌজদারি কার্যবিধি ১৫১ ধারা ও বিভিন্ন মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত আসামিদের গ্রেপ্তারে এ অভিযান চালানো হয়েছে।

অভিযানে আটককৃতরা হলেন, নোয়াদ্দা গ্রামের মনির কাজী, চরবেশনাল গ্রামের সিদ্দিকুর রহমান ভূট্টো, শিমুল বেপরী, আব্দুল মজিদ মোল্লা, দক্ষিণ বেহেররকান্দি এলাকার ইব্রাহিম খান, মুন্সিকান্দি এলাকার সফি মোল্লা, হাফিজউদ্দিন বেপারী, ইউনুস হোসেন, মহেশপুর এলাকার অর্জুন হোসেন, উজ্জ্বল ফকির, দক্ষিণ সিরাজাবাদ এলাকার মাসুদ মোল্লা ও অপর ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী লিটন ওরফে খাজা।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক জানান, ফৌজদারি কার্যবিধি আইনে ১৫১ ধারায় ১০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়, অপর একজন ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি। গ্রেপ্তারের পর আটককৃতদের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

আদালত সূূত্রে জানা যায়, গতকাল বিকালে সাড়ে ৩ টার দিকে ১৫১ ধারায় আটকৃতদের মুন্সিগঞ্জ আদালতে সোপর্দ করা হলে আদালতের বিচারক তাদের জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

প্রসঙ্গত, অধিপত্য বিস্তার সহ নানা বিষয়কে কেন্দ্র করে মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান রিপন হোসেন এর সমর্থকদের সাথে ইউনিয়নটির সাবেক চেয়ারম্যান মহসিনা হক কল্পনার সমর্থকদের মধ্যে দ্বন্দ চলে আসছে। এ নিয়ে গত কয়েক বছর ধরেই দুটি পক্ষের লোকজনকে প্রায়ই সংঘর্ষ, হামলা পাল্টা হামলা, গুলি বিনিময়, ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় লিপ্ত হতে দেখা গেছে। এসব ঘটনায় থানায় মামলা হলেও ঘটনার পেছনের মদদদাতারা রয়ে যাচ্ছে ধরাছোয়ার বাইরে।

 

error: দুঃখিত!