৩রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
সোমবার | দুপুর ২:৫৮
পদ্মা সেতুতে টোল দিয়ে গাড়ি পাড়ের খবরটি কতটুকু সত্য?
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ১৮ জুন, ২০২২, আরাফাত রায়হান সাকিব (আমার বিক্রমপুর)

প্রথমবারের মত পদ্মা সেতু টোল দিয়ে গাড়ি পার হয়েছে এমন তথ্য বেশ কিছু গনমাধ্যমে ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

তবে টোল চালুর করার উদ্দেশ্যে পরিক্ষামূলক কার্যক্রম হলেও কোন গাড়ি টাকা (টোল) দিয়ে সেতু পাড় হয়নি, এমনকি সেতুতে উঠেনি বলে নিশ্চিত করেছেন পদ্মা সেতু সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলী সূত্র।

উদ্ধোধনের পর প্রধানমন্ত্রী প্রথম টোল দিয়ে সেতু পার হবেন। পদ্মা সেতুর সাইট অফিস নির্বাহী প্রকৌশলী  ড. মাহমুদর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, উদ্ধোধনকে সামনে রেখে শুক্রবার বিকালে টোল সিস্টেমের শুধু মাত্র পরিক্ষামূলক ট্রায়াল হয়েছে। ড. মাহমুদুর রহমান জানান, টোল চালু করার উদ্দেশ্যে ট্রায়াল দিচ্ছি, কেউ টোল দেয়নি, টোল দিয়ে গাড়িও পাড় হয়নি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রথম টোল দিয়ে পাড় হবেন। আমাদের পরিক্ষামূলক কার্যক্রম চলছে। কোন টাকা পয়সার লেনদেন হয়নি। টোল কার্যক্রম চালু হবে পদ্মা সেতু উদ্ধোধনের পরে, তার আগে পরিক্ষামূলক ট্রায়াল চলবে, প্রশিক্ষণ চলবে।

বিভিন্ন গনমাধ্যমে ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে টোল দিয়ে গাড়ি পাড়ের সংবাদের আসার বিষয়ে তিনি বলেন, এটা আসলে ঠিক না। টোল সিস্টেম যেটা বসানো হয়েছে, সেটা পরিক্ষামূলক ট্রায়াল দিয়েছি।

আমরা সিস্টেমটি চালু করলাম, এ সিস্টেমে বিভিন্ন ক্যাটাগড়ির বাস, মিনিবাস, পিকআপ, জিপ, মাইক্রোবাস এই জিনিস গুলো কিভাবে টোল দিয়ে পাড় হচ্ছে এগুলো পরিক্ষা করা হয়েছে। একটি গাড়ি তিনবার-চারবার-পাঁচবার করে ঘুরে ঘুরে আসছে। মূলত টোল সিস্টেম চালু করার জন্য আগে পরিক্ষা করা হয় আজকে সেকার্যক্রমই চলছে। কোন গাড়ি টাকা দিয়ে পার হয়নি এবং সেতুতেও উঠেনি। টোল প্লাজার একপাশ থেকে ঘুরে আবার আরেকপাশ গিয়েছে। তিনি আরও জানান, মাওয়া ও জাজিরা প্রান্তে টোল প্লাজায় মোট ৬টি করে লেন আছে। আমাদের পরিকল্পনা ক্যাশ ট্রানজেকশন হবে ৫টি লেনে আর একটি লেন হবে অটোমেটিক ট্রানজিকশনে। আমরা আরেকটা লেন চিন্তা করছি যেটা ইলেক্ট্রনিক টোল কালেকশন বা ইটিসি যাকে বলে । ইটিসি সিস্টেমটি গাড়ি যদি কোন হাইস্পীডেও যায় এটি গাড়ি থেকে টাকা কেটে নিবে। অপরটিতে (অটোমেটিক ট্রানজেকশন) ইটিসিও থাকবে সাথে ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করা যাবে, এবং ক্যাশ ট্রানজেকশনও হবে। তখন মোট লেন হবে ৭টি।

আমাদের ট্রায়াল সফল হয়েছে, আস্তে আস্তে আমরা চূড়ান্তর দিকে যাবো। তবে গনমাধ্যমে গাড়ি পারাপারের বিষয়টি সঠিকভাবে আসেনি।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার সন্ধ্যার পর থেকে বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমে পদ্মা সেতুতে টোল দিয়ে গাড়ি পাড় হয়েছে বলে প্রচার হয়েছে৷

প্রকৌশলী সূত্রে জানা যায়, সেতুর সড়কপথ একেবারেই প্রস্তুত। উদ্ধোধনকে ঘিরে বাকি থাকা ছোটখাটো কাজগুলোর দ্রুত শেষ করা হচ্ছে। কাজ শেষে আগামী ২২ জুন ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে সেতু কর্তৃপক্ষকে পদ্মা সেতু বুঝিয়ে দিবে।

উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে প্রস্তুতি চলছে মুন্সিগঞ্জ ও মাাদারিপুরে।

আগামী ২৫ জুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন করতে যাচ্ছেন। পরদিন সকাল ৬ টা থেকে যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হবে পদ্মা সেতু।

error: দুঃখিত!