১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
মঙ্গলবার | রাত ১০:১৯
পদ্মায় পাওয়া গেলো ৪৯ কেজি ওজনের কাতলা মাছ
খবরটি শেয়ার করুন:
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on email

মুন্সিগঞ্জ, ২৬ এপ্রিল, ২০২১, রুবেল ইসলাম তাহমিদ (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলায় পদ্মা নদীর মাওয়া এলাকায় ৪৯ কেজি ওজনের একটি কাতলা মাছ ধরা পড়েছে।

আজ সোমবার (২৬ এপ্রিল) ভোর রাতের দিকে শামছুল বেপারী নামের এক জেলের জালে মাছটি আটকা পড়ে। জেলে শামছুল বেপারী ফরিদপুর সেবা মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির সহ সভাপতি।

তিনি বলেন, এই মৌসুমে এবারই প্রথম নদী থেকে এত বড় কাতলা মাছ আমাদের জালে ধরা পড়েছে। মাছটি মাওয়া মৎস আড়তের ঘাট এলাকার মৎস্য ব্যবসায়ী মোঃ মোকলেসুর রহমান শেখ, কিনে নেন।

মৎস্য শিকারী বলেন, প্রতিদিনের মতো গতকাল রোববার দিবাগত রাতে সহযোগীদের নিয়ে পদ্মায় মাছ শিকার করতে যান তিনি। ইলিশ শিকারে নিষেধাজ্ঞার কারণে বেশ অনেক দিন বেকার বসে ছিলেন তাঁরা। নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার পর নদীতে মাছ শিকারে নামলেও ইলিশ মাছ ছাড়া আর তেমন কিছুই পাননি। গতকাল রাত তিনটার দিকে মাওয়া ঘাটের পদ্মাসেতুর এলাকায় তাঁরা জাল ফেলেন। অতপর একই উপজেলার উজানের এলাকায় গিয়ে জাল ওঠানো শুরু করেন।

ভোররাত চারটার দিকে মাছটি তুলে ফেরি ঘাট সংলগ্ন মাওয়া মৎস আড়তে নিয়ে যান তিনি। মাছটির ওজন ৪৯ কেজি। নদীতে বড় কাতলা মাছ ধরা পড়ার খবর পেয়ে ছুটে আসেন কয়েকজন ব্যাপারী। পরে তিনি মোকলেসুর নামের এক মৎস্য আড়তদারের কাছে ১ হাজার ৩শ টাকা কেজি দরে মাছটি বিক্রি করেন ৬৩ হাজার ৭শ টাকায়।

আড়তদার মৎস্য ব্যবসায়ী মোকলেসুর রহমান বলেন, আমাদের এই রকম ভিন্ন ও বড় সাইজের মাছ কিনে থাকেন ঢাকায় থাকা ইসরাক তমাল চৌধুরী নামের, স্কয়ার ও শিপিং ব্যবসায়ীরা তাদের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করে মাছটি ৫ হাজার টাকা লাভে বিক্রি করে দেন।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, নদীতে এখন মাঝেমধ্যে বিড়ল বড় ধরনের মাছ পাওয়া যায়। তবে ৪৯ কেজি ওজনের কাতলা মাছ খুব বেশি ধরা পড়ে না। এ মৌসুমে গভীর পানি থেকে অল্প পানিতে ডিম ছাড়ার জন্যই আসে মাছগুলি। এসময় আসা যাওয়ার সময়ে ধরা পড়ে জেলের জালে। এটি অবশ্যই ভালো খবর।

error: দুঃখিত!