১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
মঙ্গলবার | রাত ৪:৪৩
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
পদ্মায় চলন্ত ফেরিতে আগুন
খবরটি শেয়ার করুন:

মৃুুন্সিগঞ্জ, ১২ জুন, ২০২২, নিজস্ব প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলার শিমুলিয়া ঘাট থেকে যাত্রী ও যানবাহন নিয়ে ছেড়ে যাওয়া একটি ফেরিতে আগুন লাগার ঘটনা ঘটে।

গতকাল শনিবার সকাল পৌনে ৫টার দিকে মাঝিরকান্দি নৌ-চ্যানেলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। দুর্ঘটনা কবলিত ফেরিটির নাম বেগম রোকেয়া।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাট থেকে যানবাহন নিয়ে ছেড়ে যাওয়া ফেরিটি শরীয়তপুরের মাঝিরকান্দি চ্যানেলে প্রবেশ করতেই আগুনের লেলিহান শিখা দেখতে পায়।

এ ব্যাপারে ফেরির মাস্টার বলেন, ক্যান্টিনের পাশে কেবিনের ওপরের সিটে আগুন লাগে। ফেরির ওই কেবিনটির বিছানা, সিলিং, দরজা ও কেবিনের বাইরের সিলিং ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ঘটনার সময় কেবিনে কেউ ছিল না। দরজা খুলতেই আগুন বাইরের দিকে চলে আসে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীন নৌপরিবহন বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) ফয়সাল আহমেদ জানান, যাত্রী ও যানবাহন নিয়ে ফেরি রোকেয়া শিমুলিয়া ঘাট থেকে মাঝিরকান্দি যাচ্ছিল। মাঝিরকান্দি চ্যানেলে প্রবেশের পর ফেরির একটি কক্ষে আগুন লেগে যায়। সে সময় ফেরিতে থাকা যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে ফেরির পাম্পের পানি দিয়ে আগুন নেভানো হয়েছে। যাত্রীদের কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। ফেরির ওই কক্ষের বিছানা, আসবাবপত্র পুড়ে গেছে।

শিমুলিয়া ঘাটের বিআইডব্লিউটিসির উপমহাব্যবস্থাপক (এজিএম) শফিকুল ইসলাম জানান, ভোর পৌনে ৫টার দিকে ফেরি রোকেয়া ৩৫-৪০টি গাড়ি ও তার যাত্রী, চালকদের নিয়ে শরীয়তপুরের মাঝিরকান্দি ঘাটের দিকে রওনা দেয়। ফেরিটি ৫টার দিকে বড় নদী থেকে মাঝিরকান্দি চ্যানেলে পৌঁছালে ক্যানটিনের পাশের একটি তালাবদ্ধ কক্ষ থেকে আগুন ও ধোয়া বের হতে থাকে। পরে ফেরিতে থাকা পাম্প ও আগুন নেভানোর যন্ত্রের সাহায্যে আগুন নিয়ন্ত্রণ করা হয়।

error: দুঃখিত!